ব্লগার রাজীব হত্যা ঘটনায় গ্রেফতার পাঁচ ছাত্র

Last Updated: Saturday, March 2, 2013 - 15:30

বাংলাদেশে ব্লগার রাজীব হত্যার ঘটনায় সে দেশের পুলিস শনিবার এক বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঁচ ছাত্রকে গ্রেফতার করল। পুলিসের দাবি জেরায় ওই অভিযুক্তরা আহমেদ রাজীব হায়দারের হত্যার দায় স্বীকার করে নিয়েছেন। গত মাসের ১৫ তারিখ শাহবাগ আন্দোলনের অন্যতম উদ্যোক্তা রাজীবের মৃতদেহ উদ্ধার করে বাংলাদেশ পুলিস। রাজীবের মৃত্যু ঘিরে আরও বেশি জোরদার হয়ে ওঠে প্রজন্ম মঞ্চের লড়াই। সারা দেশ জুড়ে দ্রুত রাজীবের হত্যাকারীদের দ্রুত শনাক্তকরণ ও  শাস্তির দাবি ওঠে।
ঢাকার পুলিস কমিসনার মাসুদুর রহমান জানিয়েছেন ওই ধৃত ছাত্ররা জবানবন্দীতে জানিয়েছে  জামাতের জামাত বিরোধী ব্লগকে ইসলামের পরিপন্থী মনে করেই তাঁকে তারা হত্যার পরিকল্পনা করেছিল।
হিংসা অব্যাহত বাংলাদেশে। নতুন করে সংঘর্ষে অগ্নিগর্ভ চট্টগ্রাম, রাজশাহী সহ বিভিন্ন জায়গা।
অন্যদিকে, বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হওয়া সংঘর্ষে এখনও পর্যন্ত ৫৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। জামাত-আওয়ামি লিগ সংঘর্ষে আহত দুজনের আজ সকালে মৃত্যু হয়। 
সকাল থেকে চট্টগ্রামের বিভিন্ন জায়গায় নতুন করে সংঘর্ষ ছড়িয়ে পড়ে। মৃত্যু হয় তিন জনের। সাতকানিয়ায় আরও একজনের মৃত্যু হয়েছে বলে অসমর্থিত সূত্রে খবর। চট্টগ্রাম-কক্সবাজার জাতীয় সড়কের ওপর বিভিন্ন জায়গায় অবরোধ করে জামাত শিবিরের সদস্যরা। কয়েকটি বাস ও গাড়ি ভাঙচুরের পাশাপাশি আগুনও ধরিয়ে দেওয়া হয়। অবরোধকারীদের হঠাতে গেলে পুলিসকে লক্ষ্য করে বোমা ছোঁড়ে জামাত সমর্থকেরা। আত্মরক্ষার্থে পুলিসও পাল্টা গুলি চালায় বলে জানিয়েছেন সাতকানিয়া থানার ওসি।
সংঘর্ষ ছড়িয়ে পড়ে রাজশাহীতেও। হঠাত্‍‍‍‍ই একটি মিছিল বার করে জামাত সমর্থকেরা। মিছিল থেকে পুলিসকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়া হয়। গুরুতর জখম হন এক পুলিসকর্মী। গুলিবিদ্ধ হয়েছেন একজন চিত্রসাংবাদিকও। কুমিল্লাতেও ব্যাপক তাণ্ডব চালিয়েছে জামাত শিবির। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সুন্দরগঞ্জ, পেকুয়া, কুতুবদিয়া সহ বহু জায়গায় একশো চুয়াল্লিশ ধারা জারি করেছে বাংলাদেশ সরকার।



First Published: Saturday, March 2, 2013 - 22:25


comments powered by Disqus