চলে গেলেন হুগো শ্যাভেজ

চলে গেলেন উগো শাভেজ

চলে গেলেন উগো শাভেজমারা গেলেন ল্যাটিন আমেরিকার জুনিয়র ফিদেল কাস্ত্রো, ভেনেজুয়েলার প্রেসিডেন্ট উগো শাভেজ। তাঁর প্রয়াণের সঙ্গে এক বর্ণময় জীবন বদলে গেল ইতিহাসে।

দু'বছর ধরে ক্যান্সারের সঙ্গে লড়াই করছিলেন। চারবার অস্ত্রোপচার হয়েছিল। তবু জীবনীশক্তিতে ভাঁটা পড়তে দেননি। সেই শাভেজই মঙ্গলবার রাজধানী ক্যারাকাসে সামরিক হাসপাতালে চিরঘুমে চলে গেলেন। মৃত্যু এসে তাঁর ১৪ বছরের শাসনকালে পূর্ণচ্ছেদ টেনে দিল। আগামী ৮ মার্চ প্রয়াত প্রেসিডেন্টের অন্ত্যেষ্টি।

ভেনেজুয়েলার সংবিধান অনুযায়ী, ৩০ দিনের মধ্যে নতুন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন করতে হবে। মধ্যের এই সময়টায় প্রেসিডেন্টের দায়িত্বভার সামলাবেন ভাইস প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরো।

শাভেজের মৃত্যুর খবরে ভেঙে পড়েছেন দেশের বড় অংশের মানুষ। কারণ গত নির্বাচনে বিপুল ভোটে জিতে ক্ষমতায় এসেছিলেন শাভেজ। কিন্তু ছ'বছরের মেয়াদ শেষ করতে পারলেন না। আমেরিকার বিরুদ্ধে চড়া সুর জারি রেখেই কিউবা, নিকারাগুয়া, বলিভিয়া, ইকুয়েডরকে সঙ্গে নিয়ে দক্ষিণ আমেরিকায় স্বতন্ত্র অর্থনীতি গড়ে তুলেছিলেন শাভেজ। তার ভিত্তি ছিল দেশের বিপুল তৈল সম্ভার। স্বাভাবিক ভাবেই শাভেজের মৃত্যুতে দক্ষিণ আমেরিকার বিভিন্ন দেশে উদ্বেগ দেখা দিয়েছে। কিন্তু ভেনেজুয়েলা শাভেজের দেখানো রাস্তাতেই হাঁটবে বলে আশ্বস্ত করেছেন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাদুরো।

ভেনেজুয়েলার সঙ্গে গঠনমূলক সম্পর্ক এগিয়ে নিতে যেতে আগ্রহী আমেরিকা। উগো শাভেজের মৃত্যুর পর এমনই প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। অন্যদিকে, শাভেজের মৃত্যুতেও অটুট ভেনেজুয়েলার আমেরিকা বিরোধী স্লোগান। ভাইস প্রেসিডেন্ট মাদুরোর অভিযোগ, প্যালেস্তাইনের নেতা ইয়াসের আরাফতের মতো শাভেজের শরীরেও বিষক্রিয়া ঘটিয়েছে আমেরিকা। মার্কিন কূটনীতিক ডেভিড ডেল মোন্যাকোকে ভেনেজুয়েলা থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। ওই কূটনীতিক দেশের স্থিতিশীলতা নষ্ট করার চেষ্টা করছিলেন বলে অভিযোগ করেছেন মাদুরো।

ভেনেজুয়েলার প্রেসিডেন্ট উগো শাভেজের মৃত্যুতে শোকপ্রকাশ করলেন রাষ্ট্রসংঘের মহাসচিব বান কি মুন। শাভেজের কাজকে দেশের গরিব মানুষের পিছনে অবদান বলে উল্লেখ করেছেন তিনি। একই সঙ্গে কলম্বিয়া শান্তি প্রক্রিয়ায় শাভেজের ভূমিকাকে সমর্থন জানিয়েছেন বান কি মুন।






First Published: Wednesday, March 06, 2013, 14:03


comments powered by Disqus