ওয়ালস্ট্রিট আন্দোলনকারীর চোখে মরিচগুঁড়ো, সাসপেন্ড দুই পুলিস অফিসার

অকুপাই ওয়াল স্ট্রিটের আন্দোলনকারীর চোখে মরিচগুঁড়ো দেওয়ার অপরাধে সাসপেন্ড করা হল দুই পুলিস অফিসারকে। গত শুক্রবার ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে আন্দোলনে লাগাম পরাতে মরিচগুঁড়ো ব্যবহার করেছিল পুলিস।

Updated: Nov 22, 2011, 10:09 AM IST

অকুপাই ওয়াল স্ট্রিটের আন্দোলনকারীর দেওয়ার অপরাধে সাসপেন্ড করা হল দুই পুলিস অফিসারকে। গত শুক্রবার ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে আন্দোলনে লাগাম পরাতে মরিচগুঁড়ো ব্যবহার করেছিল পুলিস। উপাচার্যই খবর দিয়েছিলেন পুলিসকে। পরে, অবশ্য তিনি গোটা ঘটনার জন্য দুঃখপ্রকাশ করে সুনির্দিষ্ট অভিযোগও দায়ের করেন। ছাত্রছাত্রীরা অবশ্য তাঁর পদত্যাগের দাবি জানিয়েছেন।
আন্দোলনকে প্রতিহত করতে এরকমই মধ্যযুগীয় পদ্ধতি ব্যবহার করেছে মার্কিন পুলিস। কোনো প্ররোচনা ছিল না। ছিল না হিংসার চিহ্নমাত্র। তবু, ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রদের অকুপাই ওয়াল স্ট্রিট আন্দোলনে সামিল হওয়ার বিরুদ্ধে এই মরিচ দাওয়াই-ই ব্যবহার করল পুলিস প্রশাসন। ছাত্রদের চোখে নির্বিচারে ছুঁড়ে দেওয়া হল মরিচের গুঁড়ো। আন্দোলনকারীদের ঠেকাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য পুলিসে খবর দিয়েছিলেন। কিন্তু, পুলিস যে এভাবে আন্দোলনের কণ্ঠরোধের চেষ্টা করবে, তা সম্ভবত কল্পনাও করতে পারেননি তিনি। না এরপরও চুপ করে বসে থাকতে পারেননি ছাত্রছাত্রীরা। উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে অবস্থান শুরু করেন তারা। দায়ের করা অভিয়োগের ভিত্তিতে সাসপেন্ড করা হল দুই পুলিস অফিসারকে। কিন্তু, আন্দোলনে লাগাম পরাতে মার্কিন পুলিসের এই ভূমিকায় সমালোচনার ঝড় উঠেছে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে।