ধর্ষণের অভিযোগে সাসপেন্ড হেয়ার স্ট্রিট থানার এএসআই

ধর্ষণের অভিযোগে সাসপেন্ড হেয়ার স্ট্রিট থানার এএসআই

ধর্ষণের অভিযোগে সাসপেন্ড হেয়ার স্ট্রিট থানার এএসআইসাসপেন্ড করা হল ধর্ষণে অভিযোগে অভিযুক্ত হেয়ার স্ট্রিট থানার এএসআই প্রকাশ থাপাকে। আজ অভিযুক্তকে শিয়ালদহ আদালতে তোলা হলে ছ দিনের পুলিসি হেফাজতের নির্দেশ দেন বিচারক। ফাস্ট ট্রাক কোর্টে এই ধর্ষণের মামলার দ্রুত নিষ্পত্তিরও দাবিতে  শিয়ালদহ আদালত চত্বরে বিক্ষোভ দেখান একটি মহিলা সংগঠনের সদস্যরা।

বুধবার বেনিয়াপুকুরের বাড়িতে বছর চল্লিশের এক মহিলাকে ধর্ষণের চেষ্টা করে হেয়ার স্ট্রিট থানার এএসআই প্রকাশ থাপা। মহিলার চিত্‍কারে ছুটে এসে থাপাকে হাতেনাতে ধরে ফেলেন স্থানীয় বাসিন্দারা। তুলে দেওয়া হয় পুলিসের হাতে। অভিযুক্ত এএসআইকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে গেলে বিক্ষোভ দেখান স্থানীয় বাসিন্দারা। বৃহস্পতিবার দুপুরে কড়া নিরাপত্তার মধ্যে প্রকাশ থাপাকে নিয়ে আসা হয় শিয়ালদহ আদালতে।
 
প্রকাশ থাপার চরিত্র নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন অভিযোগকারিনীর প্রতিবেশীরা। ধর্ষণে অভিযুক্ত এএসআইয়ের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে এদিন শিয়ালদহ আদালত চত্বরে বিক্ষোভ দেখায় একটি মহিলা সংগঠনের সদস্যরা। ফাস্ট ট্রাক কোর্টে এই ধর্ষণের মামলার দ্রুত নিষ্পত্তিরও দাবি জানানো হয়। গ্রেফতারের চব্বিশ ঘণ্টা পেরিয়ে যাওয়ায় প্রকাশ থাপাকে সাসপেন্ড করা হয়। এদিন ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতিতে অভিযোগকারিনীর গোপন জবানবন্দি নেওয়া হয়।






First Published: Thursday, January 10, 2013, 22:36


comments powered by Disqus