বিপাকে এক থি ডায়ান

Last Updated: Thursday, April 4, 2013 - 18:00

মুক্তি নিয়ে অনিশ্চয়তার মুখে একতা কপূর প্রযোজিত ছবি এক থি ডায়ান। আগামী ১৮ এপ্রিল মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল এক থি ডায়ানের। তার আগে ছবির প্রচারের জন্য ডাকিনী বিদ্যায় পারদর্শী ঈপ্সিতা রায় চক্রবর্তীর সঙ্গে যোগাযোগ করেন প্রযোজক একতা কপূর ও পরিচালক বিশাল ভরদ্বাজ। কিন্তু ঈপ্সিতা অভিযোগ করেছেন, এই ছবিতে ডাকিনীবিদ্যায় পারদর্শী মহিলাদের অপমান করা হয়েছে।
তাঁর অভিযোগ জানাতে মঙ্গলবার রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে দেখা করেন ঈপ্সিতা। বিষয়টি নিয়ে জাতীয় মহিলা কমিশনের প্রধান মমতা শর্মার কাছে সুপারিশের জন্য রাষ্ট্রপতির কাছে আবেদনও জানিয়েছেন তিনি। তাঁর বক্তব্য এই ধরনের ছবি তৈরি হলে গ্রামের দিকে মহিলাদের ওপর এই কারণে ধর্ষণ ও শারীরিক নির্যাতনের ঘটনা বাড়বে। ঈপ্সিতা জানান, "মঙ্গলবার আমি সন্ধে সাতটার সময় রাষ্ট্রপতি ভবনে গিয়ে লিখিত অভিযোগ জানিয়েছি। আমার অভিযোগের কারণও ওনার কাছে ব্যক্ত করেছি আমি। এই ধরনের ছবি মুক্তি পেলে আমাদের দেশে মহিলাদের ডাকিনী বলে অভিহিত করার ও পুড়িয়ে মারার যে শতাব্দী প্রাচীন কুসংস্কার চলে আসছে তা কোনওদিন বন্ধ হবে না। বরং আরও বাড়বে। এই ছবির বিষয়বস্তু পুরোটা আমার জানা। বালাজি টেলিফিল্মস আমাকে সবটাই বলেছে। ছবির পরিচালকের সঙ্গে আমার দীর্ঘ আলোচনাও হয়েছে।" কঙ্কনা সেনশর্মার মত একজন জাতীয় পুরস্কার প্রাপ্ত অভিনেত্রী কীভাবে এই ছবিতে অভিনয় করলেন সেই বিষয়ে বিস্ময়ও প্রকাশ করেছেন ঈপ্সিতা।

প্রায় নজিরবিহীনভাবে কোনও বলিউড ছবির বিরুদ্ধে অভিযোগ গ্রহণ করেছেন রাষ্ট্রপতি। অনেকেই মনে করছেন রাষ্ট্রপতির স্ত্রী শুভ্রা মুখার্জির সঙ্গে ঈপ্সিতার বিশেষ ঘনিষ্ঠাতার কারণে এই ধরনের অভিযোগ তিনি গ্রহণ করেছেন। তবে সেইসব বক্তব্য উড়িয়ে দিয়ে ঈপ্সিতার দাবি, "আমি নিশ্চয়ই রাষ্ট্রপতির পারিবারিক বন্ধু, কিন্তু সেই কারণে আমি ওনার দ্বারস্থ হইনি। আমি মনে করি ভারতের মত দেশে এই ধরনের ছবি মুক্তি পাওয়া উচিত নয়।"
ঈপ্সিতার অভিযোগের বিষয়ে মুখ খুলতে চাননি একতা কপূর। কিছু বলার আগে তাঁর আইনজীবীর সঙ্গে পরামার্শ করাই শ্রেয় মনে করছেন একতা।



First Published: Thursday, April 4, 2013 - 18:00


comments powered by Disqus