ভারতীয় হয়ে আমি গর্বিত: শাহরুখ

Last Updated: Wednesday, January 30, 2013 - 20:22

বিগত কয়েকদিন ধরে চলা 'খান' বিতর্কে এবার মুখ খুললেন ক্ষুব্ধ শাহরুখ খান। মঙ্গলবার সাংবাদিক সম্মেলনে জানালেন, "আমি এই বিতর্কের কোনও ভিত্তিই খুঁজে পাচ্ছি না। দুর্ভাগ্যবশত আমি প্রবন্ধে যা লিখেছিলাম সেটাই বাস্তবে ঘটল। যারা এই প্রবন্ধটা পড়েননি তাঁরা অন্ধের মতো এমন কিছু মানুষের কথার ওপর ভরসা করছেন যাঁরাও প্রকৃতপক্ষে জানেন না আমি প্রবন্ধে ঠিক কী লিখেছিলাম। ভারতীয় হয়ে আমি গর্বিত"।
গোটা ঘটনাটিকেই `ননসেন্স` বলে উল্লেখ করে শাহরুখ বলেন, "আমাদের কখনই এমন মানুষদের দ্বারা চালিত হওয়া উচিত নয় যারা ধর্মকে একটা বিতর্ক সৃষ্টির অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করে। একজন সেলিব্রিটি হিসেবে আমাকে অনেক অবাঞ্ছিত প্রশ্নের সম্মুখীন হতে হয়। অনেক সময় লোকে আমার নাম তাদের পজিটিভ বা নেগেটিভ বক্তব্যের সঙ্গেও জুড়ে দেন। এই জীবনটাই আমি বেছে নিয়েছি এবং আমি এই জীবনটাই চাই...আমি, কারণ যেই ভালবাসা আমি পেয়েছি সেটা আমার কাজই আমাকে দিয়েছে। আমাকে একজন তারকা বানানোর জন্য সকলকে ধন্যবাদ"।
এদিন সাংবাদিক সম্মেলনে নিজের লেখা প্রবন্ধের কিছু অংশ পড়েও শোনান তিনি। "আমি এই প্রবন্ধ সেইসব হীনমন্যতায় ভোগা মানুষদের বিরুদ্ধে লিখেছি যাঁরা ক্ষুদ্র স্বার্থ চরতার্থ করার জন্য ধর্মীয় পরিচয়ের অপব্যবহার করেন। আমার সন্তানরা আমাকে ধর্ম সম্পর্কে জিজ্ঞেস করলে আমি বলি, তুমি একজন ভারতীয় এবং মনুষ্যত্বই তোমার ধর্ম"।

"আমার নিজের পরিবার ও বন্ধুবান্ধব নিয়েই একটা ছোট ভারত হয়ে যায়...যেখানে সব ধর্ম, জীবিকা এবং কিছু ভুল, সবক্ষেত্রেই সহিষ্ণুতা দেখানো হয়...আমি আমার দেশ ও দর্শকের কাছে ঋণী। এটা দুর্ভাগ্যজনক যে আমাকে এটা প্রমাণ করার জন্য আজ বলতে হচ্ছে। আমার বাবা একজন স্বাধীনতা সংগ্রামী ছিলেন"। সংবাদমাধ্যমের কাছেও এ দিন শাহরুখ অনুরোধ করেন যাতে তারা কোনও ধর্মীয় বিষয়কে অযথা বাড়িয়ে বা লঘু করে না দেখায়।
পাকিস্তানের অভ্যন্তরীণ বিষয়ক মন্ত্রী রেহমান মালিকের বক্তব্যের জবাবও এ দিন কড়া ভাষায় দিয়েছেন তিনি। "আমরা ভারতে সম্পূর্ণ গণতান্ত্রিক, স্বাধীন এবং ধর্ম নিরপেক্ষ জীবন যাপন করি। ভারতে যেই পরিবেশে আমরা বাস করি সেখানে জীবনের নিরাপত্তা নিয়ে কোনও সংশয়ই নেই। এরকম একটা অবাস্তব বিষয় নিয়ে কথা বলতে আমার বিরক্তিকর লাগছে। নিরাপত্তা আমার কাছে কোনওদিন কোনও সমস্যাই ছিল না। ভালবাসার জন্য শুধু একটা হৃদয়ের প্রয়োজন। আমি একজন খান, আমি রয়েছি ভালবাসার জন্য এবং ভালবাসা পাওয়ার জন্য"।



First Published: Wednesday, January 30, 2013 - 20:23


comments powered by Disqus