সংখ্যলঘু সম্প্রদায়ের উন্নয়নে উদাসীন মুখ্যমন্ত্রী: বুদ্ধদেব

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ধর্ম নিরপেক্ষ ভাবমুর্তিকে নস্যাত্‍‍ করলেন বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। আজ বামফ্রন্টের এক সভায় তিনি বলেন ধর্মের ভিত্তিতে কিছু ভাতা দেওয়া হচ্ছে। কিন্তু লক্ষ লক্ষ সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানুষ কাজ পাচ্ছেন না। পড়াশুনা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে শিক্ষার্থীরা। সেদিকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারের কোনও নজর নেই বলেও কটাক্ষ করেন তিনি।

Updated: Dec 6, 2012, 09:12 PM IST

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ধর্ম নিরপেক্ষ ভাবমুর্তিকে নস্যাত্‍‍ করলেন বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। আজ বামফ্রন্টের এক সভায় তিনি বলেন ধর্মের ভিত্তিতে কিছু ভাতা দেওয়া হচ্ছে। কিন্তু লক্ষ লক্ষ সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানুষ কাজ পাচ্ছেন না। পড়াশুনা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে শিক্ষার্থীরা। সেদিকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারের কোনও নজর নেই বলেও কটাক্ষ করেন তিনি।
বিধানভা নির্বাচনের আগে রাজ্যের সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানুষের উন্নয়নের জন্য একগুচ্ছ প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু এর মধ্যেই অভিযোগ উঠতে শুরু করেছে মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষদের উন্নয়নে এখনও পর্যন্ত বিশেষ কোনও পদক্ষেপ নেয়নি রাজ্য সরকার। বৃহস্পতিবার এই ইস্যুতেই মমতা বন্দোযপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে তোপ দেগেছেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। বামেদের আরও অভিযোগ, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারের অবস্থানের কারণেই রাজ্যে বিজেপি শক্তিশালী হচ্ছে। জঙ্গিপুরের লোকসভা উপনির্বাচনের ফলাফলকে নিজেদের অভিযোগের স্বপক্ষে উদাহরণ হিসাবে তুলে ধরেন বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য।
রঙ্গনাথ মিশ্র কমিশনের সুপারিশ মেনে রাজ্যে পিছিয়ে পড়া মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষদের চাকরি এবং শিক্ষাক্ষেত্রে দশ শতাংশ আসন সংরক্ষণের সিদ্ধান্ত নেয় বাম সরকার। কিন্তু ওই সিদ্ধান্তকে খারিজ করে দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য বলেন সংখ্যালঘু সম্প্রাদায়ের মানুষের উপকার করতে চাইলে সরকারের উচিত যত তাড়াতাড়ি সম্ভব রঙ্গনাথ মিশ্র কমিশনের সুপারিশ কার্যকর করা।