'সহমত' বিতর্কে অ্যাডভান্টেজ কমিশন

সহমত বিতর্ক মামলায় কার্যত জয়লাভ নির্বাচন কমিশনের। ১৪ই মে যে নির্দেশে দিয়েছিল ডিভিশন বেঞ্চ, তার নতুন করে ব্যাখ্যা দিলেন বিচারপতিরা। নির্বাচন পরিচালনায় কমিশনের সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত বলে ব্যাখ্যা করেছে আদালত। বাহিনীর প্রশ্নেও সিদ্ধান্ত নেবে কমিশনই। অর্থাত্ মান্যতা পেল কমিশনের আবেদন।

Updated: Jun 12, 2013, 04:53 PM IST

সহমত বিতর্ক মামলায় কার্যত জয়লাভ নির্বাচন কমিশনের। ১৪ই মে যে নির্দেশে দিয়েছিল ডিভিশন বেঞ্চ, তার নতুন করে ব্যাখ্যা দিলেন বিচারপতিরা। নির্বাচন পরিচালনায় কমিশনের সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত বলে ব্যাখ্যা করেছে আদালত। বাহিনীর প্রশ্নেও সিদ্ধান্ত নেবে কমিশনই। অর্থাত্ মান্যতা পেল কমিশনের আবেদন। সরকারের হলফনামা জমা দেওয়ার আর্জি খারিজ করে দিয়েছে আদালত। সহমত শব্দটি থাকছে কিন্তু কমিশনকেই সর্বোচ্চ ক্ষমতা।
এজলাসে চলছিল নির্বাচন কমিশনের সহমত মামলা। প্রধান বিচারপতি সঙ্গে তীব্র বাদানুবাদ সমরাদিত্য পালের। `সহমত` শব্দটি নিয়ে আপত্তি তোলেন রাজ্য নির্বাচন কমিশনের আইনজীবী। তীব্র আপত্তি জানান তিনি।
সমরাদিত্য পালের দাবি, `ভোটে কমিশনের ভূমিকাই চূড়ান্ত`, মন্তব্য করেছিল কলকাতা হাইকোর্ট। কিন্তু তা ক্ষুণ্ণ হচ্ছে বলে মনে করেন সমরাদিত্য পাল।

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. You can find out more by clicking this link

Close