মমতার অনাস্থায় দ্বিধায় বিজেপি, কংগ্রেসের কটাক্ষ

Last Updated: Sunday, November 18, 2012 - 20:04

তৃণমূল কংগ্রেসের অনাস্থা প্রস্তাব এখনও সেভাবে হালে পানি পাচ্ছে না। মাত্র ১৯ জন সাংসদ নিয়ে কার্যত অসম্ভব যুদ্ধে নেমে সম্মানরক্ষার লড়াইয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আসল ভরসা বিজেপিও মুখ ঘুরিয়ে আছে। এফডিআই ইস্যুতে অনাস্থা প্রস্তাব আনার বিষয়ে বিজেপির সমর্থন চেয়ে সুষমা স্বরাজকে ফোন করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আজ কলকাতায় এ কথা জানান বিজেপি নেতা মুরলি মনোহর যোশী। কাল এনডিএর বৈঠকে এ বিষয়ে আলোচনা হবে বলেও জানান তিনি। তবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অনাস্থা প্রস্তাবে যে বিজেপির আস্থা নেই তারও ইঙ্গিত দিয়েছেন যোশী। তিনি মনে করেন, অনাস্থা প্রস্তাব আনতে গেলে যে সংখ্যার প্রয়োজন তৃণমূলনেত্রীর হাতে সে সংখ্যা নেই।
লোকসভায় অনাস্থা প্রস্তাব গৃহীত হলে সরকারের বিরুদ্ধে ভোট দেবে বামেরা। আজ এ কথা জানান সিপিআই সাংসদ গুরুদাস দাশগুপ্ত। সরকার বাঁচানোর দায় বামেদের নেই বলেও তিনি জানান। এ প্রসঙ্গে, সিপিআইএম নেতা বিমান বসু বলেন, অনাস্থা প্রস্তাব আনার জন্য লোকসভায় প্রয়োজনীয় সদস্য সংখ্যা নেই তৃণমূলের। 
 অন্যদিকে, কংগ্রেসও চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ছে তৃণমূলকে। "লোকসভায় ১৯ জন সদস্য নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে অনাস্থা আনার কথা ভাবছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর এই প্রচেষ্টা সফল হবে না।" তৃণমূল নেত্রীকে কটাক্ষ করে আজ এই মন্তব্য করেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি প্রদীপ ভট্টাচার্য। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সাম্প্রদায়িক বিজেপির সঙ্গে হাত মেলাতে চাইছেন বলেও অভিযোগ করেন তিনি। এদিকে, তৃণমূল নেত্রীর অনাস্থা প্রস্তাবকে বিজেপি যে সমর্থন করবে না তার ইঙ্গিত দিয়ে রেখেছেন বিজেপি নেতা মুরলী মনোহর যোশী।   
কেন্দ্রীয় সরকারের ওপর থেকে সমর্থন তুলে নেওয়ার পর এ বার সরকার ফেলার চেষ্টায় উঠে পড়ে লেগেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সংসদের আসন্ন শীতকালীন অধিবেশনে অনাস্থা প্রস্তাব আনতে চাইছেন তিনি। কিন্তু, লোকসভায় সদস্য সংখ্যার নিরিখে এককভাবে অনাস্থা আনার জায়গায় নেই তৃণমূল। এই অবস্থায় তাঁর প্রস্তাবকে সমর্থন করার জন্য বাম-বিজেপি সহ অন্যান্য দলকে অনুরোধ করেছেন তৃণমূল নেত্রী।
বামেরা এফডিআই ইস্যুতে সংসদে আলোচনার পর ভোটাভুটির পক্ষপাতী। সরকারের বিরুদ্ধে অনাস্থা আনা হবে কিনা তা এখনও তারা স্পষ্ট করেনি। দ্বিধায় রয়েছে বিজেপিও। রবিবার, বিজেপি নেতা মুরলী মনোহর যোশী জানান, অনাস্থা প্রস্তাবের পক্ষে সমর্থন চেয়ে লোকসভার বিরোধী দলনেত্রী সুষমা স্বরাজকে ফোন করেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু, সংখ্যাতত্বের বিচারে সরকারের বিরুদ্ধে তৃণমূল নেত্রীর অনাস্থায় তাঁদের যে খুব একটা আস্থা নেই, তার ইঙ্গিত দিয়েছেন মুরলী মনোহর যোশী।
এক সময়ের জোটশরিক তৃণমূল অনাস্থা আনার সিদ্ধান্ত নেওয়ায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে একহাত নিয়েছে কংগ্রেস। প্রদীপ ভট্টাচার্যের অভিযোগ, বাম-বিজেপির সমর্থন চেয়ে তৃণমূলনেত্রী নীতিহীন রাজনীতি করছেন। ২২ নভেম্বর শুরু হচ্ছে সংসদের শীতকালীন অধিবেশন। ওইদিন, প্রদেশ কংগ্রেস তৃণমূলের বিরুদ্ধে রাজ্যজুড়ে ধিক্কার দিবস পালন করবে বলে জানিয়েছেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি।



First Published: Sunday, November 18, 2012 - 22:01


comments powered by Disqus