রাজধানীর খাবার খেয়ে অসুস্থ যাত্রীরা

ফের বিতর্কে রাজধানী এক্সপ্রেস। এবারের অভিযোগ খাবারের নিম্নমান নিয়ে। আর সেই খাবার খেয়ে অসুস্থ পড়লেন যাত্রীরা। প্রায় আড়াই ঘণ্টা পর ডাক্তার এলেন। দুর্ব্যবহার করলেন কর্তব্যরত আরপিএফ জওয়ানরা। দুর্বিষহ এই অভিজ্ঞতার শিকার হলেন শিয়ালদহমুখী রাজধানী এক্সপ্রেসের যাত্রীরা।ফের দুরপাল্লার ট্রেনে নিম্নমানের খাবার দেওয়ার অভিযোগ। এবার দুর্ভোগের শিকার  শিয়ালদহমুখী রাজধানী এক্সপ্রেসের যাত্রীরা। অভিযোগ শনিবার রাতে ট্রেনের খাবার খেয়ে হঠাতই অসুস্থ হয়ে পড়েন যাত্রীরা। পেটের যন্ত্রণার পর শুরু হয় বমি। বারবার অসুস্থতার কথা জানানো হলে প্রায় আড়াই ঘণ্টা পরে পৌঁছন চিকিৎসক।     

Updated: May 26, 2013, 05:25 PM IST

ফের বিতর্কে রাজধানী এক্সপ্রেস। এবারের অভিযোগ খাবারের নিম্নমান নিয়ে। আর সেই খাবার খেয়ে অসুস্থ পড়লেন যাত্রীরা। প্রায় আড়াই ঘণ্টা পর ডাক্তার এলেন। দুর্ব্যবহার করলেন কর্তব্যরত আরপিএফ জওয়ানরা। দুর্বিষহ এই অভিজ্ঞতার শিকার হলেন শিয়ালদহমুখী রাজধানী এক্সপ্রেসের যাত্রীরা। ফের দুরপাল্লার ট্রেনে নিম্নমানের খাবার দেওয়ার অভিযোগ। এবার দুর্ভোগের শিকার  শিয়ালদহমুখী রাজধানী এক্সপ্রেসের যাত্রীরা। অভিযোগ শনিবার রাতে ট্রেনের খাবার খেয়ে হঠাতই অসুস্থ হয়ে পড়েন যাত্রীরা। পেটের যন্ত্রণার পর শুরু হয় বমি। বারবার অসুস্থতার কথা জানানো হলে প্রায় আড়াই ঘণ্টা পরে পৌঁছন চিকিৎসক।  
 
ঘটনার প্রতিবাদে কানপুর স্টেশনে বিক্ষোভ দেখান যাত্রীরা। সেইসময় আরপিএফ জওয়ানরা যাত্রীদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেন বলে অভিযোগ।  রেহাই পাননি মহিলা যাত্রীরাও।  
রবিবার সকালে শিয়ালদহ স্টেশনে পৌঁছে নিজেদের ক্ষোভ উগরে দেন ভুক্তভোগীরা। স্টেশনে আরপিএফ জওয়ানদের সঙ্গেও বচসায় জড়িয়ে পড়েন তাঁরা। রাজধানী এক্সপ্রেসের মত প্রথম  শ্রেণীর ট্রেনে এই ধরনের হয়রানির শিকার হওয়ায় রীতিমত হতাশ যাত্রীরা।