ভূস্বর্গের কারফিউয়ে আটক জেটলিও

Last Updated: Sunday, August 11, 2013 - 16:56

আগুন লেগেছে ভূস্বর্গে। ফের একবার বেওনেট আর সেনাবাহিনীর টাইগার ভ্যানের টহলে কাশ্মীর। আর চেনা ছবি কারফিউ। রবিবার আরও তিনটি জেলায় কারফিউ জারি করা হয়েছে। চলছে আর্মির ফ্ল্যাগ মার্চ। রাজনৈতিক নেতাদের প্রবেশাধিকারে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে জম্মু প্রশাসন। আজ সকালে জম্মু বিমানবন্দরে বিজেপি নেতা অরুণ জেটলিকে আটক করা হয়। তাঁকে ফিরে যেতে বাধ্য করা হয়।
এই নিয়ে তৃতীয় দিনে পড়ল কাশ্মীরের কারফিউ। সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের জেরে শুক্রবার থেকে এই নিয়ে তিন জনের মৃত্যু হয়েছে। তাঁদের মধ্যে ১ জনের দেহ উদ্ধার হয়েছে আজ সকালে। জম্মু ও রাজৌরি জেলা উত্তেজনার জেরে সেনা তলব করা হয়, জারি হয় কারফিউ। আর আজ উধমপুর, সাম্বা এবং কাথুয়া জেলায় নতুন করে কারফিউ জারি হয়েছে। সেনা টহল সত্ত্বেও ক্রমশ আগুন ছড়াচ্ছে পাহাড়ে।
রাজ্যসভার বিরোধী দলনেতা অরুণ জেটলিকে আটক কড়া নিয়ে কড়া প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছে বিজেপি। আজ কিস্তাওয়ার যাওয়ার কথা ছিল জেটলি ও পঞ্জাবের সাংসদ অবিনাশ রাই খান্নার। আটকে দেওয়া হয় তাঁদের। পিডিপি নেতা মেহেবুবা মুফতিকে শ্রীনগরে গৃহবন্দি রাখা হয়েছে।
তবে বিজেপির উদ্দেশ্যে পাল্টা অভিযোগ শানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী ওমর আবদুল্লা। তাঁর অভিযোগ লোকসাভা নির্বাচনের কথা মাথায় রেখে বিরোধী নেতারা কাশ্মীরের পরিস্থিতিকে ক্রমশ খারাপ করার চেষ্টা করছেন।
কোনও নেতার নাম না করেই তিনি বলেন, "তাঁদের উদ্দেশ্য ২০০৮ এর মতো পরিস্থিতি তৈরি করা, তাতে ওঁরা লোকসভা ও বিধানসভা নির্বাচনকে প্রভাবিত করতে পারবে।" তিনি এও জানান লোকসাভার বিরোধী দলনেত্রী সুষমা স্বরাজের সঙ্গে কথা হয়েছে তাঁর, "টেলিফোনে আমি বিরোধী দলনেত্রীকে অনুরোধ করেছি, তাঁদের লোকেদের শান্তি বজার রাখার জন্য।"
এদিন প্রশাসনিক তৎপরতা ছিল চোখে পড়ার মতো। এক আধিকারিক জানান, "এখনও উত্তেজনা রয়েছে, কিন্তু পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে। আজ নতুন করে কোনও অপ্রীতিকর ঘটনার খবর নেই। বিভিন্ন এলাকায় ফ্ল্যাগ মার্চ করছে আর্মি।"



First Published: Sunday, August 11, 2013 - 16:56


comments powered by Disqus