ইউ বি গ্রুপের নয়া ফতোয়া শাঁখের করাতের সম্মুখে ইস্টবেঙ্গল কর্তারা

একদিকে আইএমজিআরের কড়া নিয়ম। অন্যদিকে স্পনসরের হুঁশিয়ারি। দুদিক থেকে জোড়া চাপে ইস্টবেঙ্গল। স্পনসরের চাপে আইএসএলে খেলার জন্য যে দরপত্র তুলেছে লালহলুদ তাতেও পরিস্কার বলা হয়েছে এই লিগে খেলতে হলে দিতে হবে পনেরো কোটি টাকা ফ্রাঞ্চাইজি ফি। যার মধ্যে বিড জমা দেওয়ার সময়ই দিতে হবে সাড়ে সাত কোটি টাকা।

Updated: May 19, 2017, 11:47 PM IST
ইউ বি গ্রুপের নয়া ফতোয়া শাঁখের করাতের সম্মুখে ইস্টবেঙ্গল কর্তারা

ওয়েব ডেস্ক: একদিকে আইএমজিআরের কড়া নিয়ম। অন্যদিকে স্পনসরের হুঁশিয়ারি। দুদিক থেকে জোড়া চাপে ইস্টবেঙ্গল। স্পনসরের চাপে আইএসএলে খেলার জন্য যে দরপত্র তুলেছে লালহলুদ তাতেও পরিস্কার বলা হয়েছে এই লিগে খেলতে হলে দিতে হবে পনেরো কোটি টাকা ফ্রাঞ্চাইজি ফি। যার মধ্যে বিড জমা দেওয়ার সময়ই দিতে হবে সাড়ে সাত কোটি টাকা।

ইউবি গ্রুপ দরপত্র তোলার জন্য চাপ দিলেও এই বিরাট অর্থ দেওয়ার কোনও আশ্বাসই দেয়নি ইস্টবেঙ্গলকে। উল্টে জানিয়ে দিয়েছে তারা চায় ভারতের এক নম্বর লিগে খেলুক লালহলুদ। আর ক্লাব যদি এক নম্বর লিগে না খেলে সেক্ষেত্রে স্পনসরশিপ তুলেও নিতে পারে ইউবি। ক্লাব কর্তাদের সেটাও বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে। এখন জোড়া বাউন্সারে বেশ ব্যাকফুটে লালহলুদ কর্তারা। হয় তাদের  আইএসএলে খেলার জন্য খরচ করতে হবে কুড়ি থেকে পঁচিশ কোটি টাকা, নয়তো খুঁজতে হবে আই লিগে  খেলার জন্য নয়া স্পনসর। সবমিলিয়ে ইউ বি গ্রুপের নয়া ফতোয়া শাঁখের করাতের মত হয়ে দাঁড়িয়েছে ইস্টবেঙ্গল কর্তাদের কাছে। (আরও পড়ুন- কিছুদিন আগেও ছিলেন হোটেলের ওয়েটার, এখন হতে চলেছেন আইপিএলের ফাইনালিস্ট দলের সদস্য )