স্পোর্টিংয়ের কাছে আটকে ইস্টবেঙ্গল বোঝাল, এবার আর হবে না

স্পোর্টিংয়ের কাছে আটকে ইস্টবেঙ্গল বোঝাল, এবার আর হবে না

স্পোর্টিংয়ের কাছে আটকে ইস্টবেঙ্গল বোঝাল, এবার আর হবে নাইস্টবেঙ্গল (১) স্পোর্টিং ক্বাব (১)
(চিডি) (জুয়ানফ্রাই)
আই লিগ জয়ের স্বপ্ন ধাক্কা খেল ইস্টবেঙ্গলের। রবিবার স্পোর্টিংয়ের সঙ্গে ম্যাচ ১-১ গোলে ড্র করল ইস্টবেঙ্গল। মেহতাব-খাবরা-সৌমিকের অনুপস্থিতি যে কতটা ফ্যাক্টর হতে পারে তা দেখলেন যুবভারতীতে আসা ইস্টবেঙ্গল দর্শকরা। প্রথমার্ধে লিগ টেবিলের নীচের দিকে থাকা স্পোর্টিং ক্লাব দ্য গোয়ার বিরুদ্ধে সঞ্জু-পেনদের পাফরম্যান্স হতাশজনক।

কালু-ভিক্টোরিনোরা বরং সমানে সমানে লড়াই চালালেন ইস্টবেঙ্গলের সঙ্গে। কোনও দলেরই কোন পজিটিভ মুভমেন্ট ছিল না। খেলা আটকে ছিল যুবভারতীর মাঝমাঠেই। প্রথমার্ধের একেবারে শেষ মুহূর্তে জুয়ানফ্রাইয়ের বিশ্বমানের গোলে এগিয়ে যায় গোয়ার দলটি। দ্বিতীয়ার্ধে  ইস্টবেঙ্গলের গোল পাওয়ার জন্য মরিয়া চেষ্টার শুরু। ডিকার দুরন্ত সেন্টার থেকে মাথা ছুঁইয়ে চিডির গোল ক্ষনিকের স্বস্তি দিল  ইস্টবেঙ্গলকে।

এরপরও বেশ কয়েকটি সুযোগ তৈরি করলেও লাল হলুদ আক্রমণের ঝড় আটকে পড়ে স্পোর্টিং গোলরক্ষক ব্রুনো কোলাসোর হাতেই। ইস্টবেঙ্গলের ভরসার ডিফেন্স এদিন ছিল একেবারেই ছন্নছাড়া। ফল তিন পয়েন্টের বদলে এক পয়েন্ট নিয়েই মাঠ ছাড়তে হল ইস্টবেঙ্গলকে। ইস্টবেঙ্গল সমর্থকরা প্রয়াগ ইউনাইটেডের বিরুদ্ধে ম্যাচ থাকলেই আতঙ্কে ভোগেন। কারণ, প্রয়াগ নাকি তাঁদের শক্তগাঁট।

পরিসংখ্যান বলছে মরগ্যানের আরও একটি বিপদের নাম স্পোর্টিং ক্লাব দ্য গোয়া। এই মরসুমে এই নিয়ে তিনবার দেখা হয়েছে গোয়ার দলটির সঙ্গে। অথচ একবারও জিততে পারেননি চিড্ডি-ওপারারা। আজ রাতেই মরগ্যান অস্ট্রেলিয়া যাবেন ইস্টবেঙ্গলে তাঁর ভবিষ্যত নিয়ে সিদ্ধান্ত নিতে। কিন্তু বিমান ধরার আগে মরগ্যান তাঁর বর্তমান নিয়েই যে শঙ্কিত। এবারও আইলিগ হাতছাড়া হওয়ার পথে! স্পোর্টিং ম্যাচ ড্রয়ের পর ইস্টবেঙ্গলের পয়েন্ট হল ২৩ ম্যাচে ৪৩।





First Published: Sunday, April 14, 2013, 20:16


comments powered by Disqus