শিখরে উঠেও মাটিতেই পা ধাওয়ানের

চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে তাঁর অসাধারণ পারফরমেন্সের জন্য ফাইনালের আগেই ম্যান অফ দ্য সিরিজের ট্রফিটা নিশ্চিত করেছিলেন ভারতীয় ক্রিকেটের নতুন তারা শিখর ধাওয়ান।প্রত্যাশিত ট্রফিটা হাতে পেয়ে সেটাকে উৎসর্গ করলেন উত্তরাখণ্ডের বন্যা দুর্গত মানুষদের প্রতি। অন্য দিকে তাঁর অধিনায়ক পরিষ্কার জানিয়ে দিলেন পরিস্থিতি অনুযায়ী যে ক্রিকেটার জ্বলে ওঠেন তাঁর কাছে তিনিই ভাল খেলোয়াড়। ''বহু লোকজন টেকনিক নিয়ে কথা বলেন। কিন্তু আমার কাছে সেই সেরা যে পরিস্থিতি অনুযায়ী উপোযোগী সাড়া দেয়।''  চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি বগলদাবা করে গর্বিত অধিনায়ক সাংবাদিক সম্মেলনে এমনটাই জানালেন। সঙ্গে ভূয়ষী প্রশংসায় ভরিয়ে দিলেন শিখর ধাওয়ান, রোহিত শর্মা, রবীন্দ্র জাদেজা সহ গোটা টিমকেই।

Updated: Jun 24, 2013, 10:29 AM IST

চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে তাঁর অসাধারণ পারফরমেন্সের জন্য ফাইনালের আগেই ম্যান অফ দ্য সিরিজের ট্রফিটা নিশ্চিত করেছিলেন ভারতীয় ক্রিকেটের নতুন তারা শিখর ধাওয়ান।
প্রত্যাশিত ট্রফিটা হাতে পেয়ে সেটাকে উৎসর্গ করলেন উত্তরাখণ্ডের বন্যা দুর্গত মানুষদের প্রতি। অন্য দিকে তাঁর অধিনায়ক পরিষ্কার জানিয়ে দিলেন পরিস্থিতি অনুযায়ী যে ক্রিকেটার জ্বলে ওঠেন তাঁর কাছে তিনিই ভাল খেলোয়াড়।
''বহু লোকজন টেকনিক নিয়ে কথা বলেন। কিন্তু আমার কাছে সেই সেরা যে পরিস্থিতি অনুযায়ী উপোযোগী সাড়া দেয়।''  চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি বগলদাবা করে গর্বিত অধিনায়ক সাংবাদিক সম্মেলনে এমনটাই জানালেন। সঙ্গে ভূয়ষী প্রশংসায় ভরিয়ে দিলেন শিখর ধাওয়ান, রোহিত শর্মা, রবীন্দ্র জাদেজা সহ গোটা টিমকেই।
এজবাস্টনে ইংল্যান্ডকে পাঁচ রানে হারিয়ে প্রথমবার এককভাবে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি জিতল ভারত। পাশাপাশি এই টুর্নামেন্টে টানা ম্যাচ জিতে চ্যাম্পিয়ন হওয়ারও কৃতিত্ব দেখাল ধোনি ব্রিগেড। বৃষ্টিবিঘ্নিত ফাইনাল ম্যাচে কুড়ি ওভারে ভারত করে সাত উইকেটে একশো উনত্রিশ। জবাবে ইংল্যান্ড করে আট উইকেটে একশো চব্বিশ। ফাইনালে ম্যান অফ দ্য ম্যাচ হয়েছেন রবীন্দ্র জাদেজা। টুর্নামেন্টে একটি ম্যাচও না হেরে চ্যাম্পিয়ন হওয়ায় টিম ইন্ডিয়াকে অভিনন্দন জানিয়েছেন অন্তরবর্তী বোর্ড সভাপতি জগমোহন ডালমিয়া।
টানা জয়ের ধারা অব্যাহত রেখে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি জিতল ভারত।
বৃষ্টিবিঘ্নিত ফাইনালে ইংল্যান্ডকে পাঁচ রানে হারিয়ে দেয় ধোনি ব্রিগেড। এদিন বৃষ্টির জন্য ম্যাচ কুড়ি ওভারের করার সিদ্ধান্ত নেন আম্পায়াররা। টসে জিতলে ইংল্যান্ড অধিনায়ক কুক ভারতকে ব্যাট করতে পাঠায়। বিরাট কোহলি, শিখর ধাওয়ান ও রবীন্দ্র জাদেজার লড়াকু ব্যাটিংয়ের সৌজন্যে ভারত কুড়ি ওভারে সাত উইকেটে ১২৯ রান করে। কোহলি ৪৩, জাদেজা ৩৩ ও ধাওয়ান ৩১ রান করেন। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ৪৬ রানে চার উইকেট খুইয়ে ইংল্যান্ড চাপে পড়লেও ইয়ন মরগ্যান ও বোপারা ইংল্যান্ডকে ফের লড়াইয়ে ফেরান। কিন্তু দুজনে জুটিতে চৌষট্টি রান তোলার পরই ঘটে ছন্দ পতন। ইশান্ত শর্মা পরপর দুইবলে প্যাভিলিয়নে ফেরত পাঠান মরগ্যান ও বোপারাকে। মরগ্যান তেত্রিশ ও বোপারা তিরিশ করেন। এই দুই ব্যাটসম্যান ফিরতেই ইংল্যান্ডের জয়ের আশা শেষ হয়ে যায়। শেষ পর্যন্ত ইংল্যান্ড আট উইকেটে একশো চব্বিশ রান তোলে। ভারতের পক্ষে ইশান্ত শর্মা, অশ্বিন ও জাদেজা দুটি করে উইকেট পেয়েছেন। এই জয়ের ফলে এই প্রথম এককভাবে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি জিতল ভারত। এর আগে দুহাজার দুই সালে শ্রীলঙ্কার সঙ্গে যুগ্মজয়ী হয়েছিল ভারতীয় দল।