কাল প্রয়াগের বিরুদ্ধে মরণবাঁচন লড়াই মোহনবাগানের

আগামীকাল, রবিবার কল্যাণীতে আই লিগের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে মুখোমুখি মোহনবাগান ও প্রয়াগ ইউনাইটেড। নির্বাসনের ধাক্কা কাটিয়ে ফেরা মোহনবাগানে সামনের এখন অবনমনের খাঁড়া ঝুলছে। রবিবার প্রয়াগকে হারাতে না পারলে মাত্র এক পয়েন্ট নিয়ে লিগ তালিকায় সবার শেষে থাকা মোহনবাগান কোচ করিমের চাকরি নিয়েও প্রশ্ন উঠতে শুরু করবে। এমন একটা গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে টোলগের খেলা নিয়ে সংশয় তৈরি হওয়ায় বাগান শিবিরে আশঙ্কার কালো মেঘ।

Updated: Jan 26, 2013, 07:07 PM IST

আগামীকাল, রবিবার কল্যাণীতে আই লিগের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে মুখোমুখি মোহনবাগান ও প্রয়াগ ইউনাইটেড। নির্বাসনের ধাক্কা কাটিয়ে ফেরা মোহনবাগানে সামনের এখন অবনমনের খাঁড়া ঝুলছে। রবিবার প্রয়াগকে হারাতে না পারলে মাত্র এক পয়েন্ট নিয়ে লিগ তালিকায় সবার শেষে থাকা মোহনবাগান কোচ করিমের চাকরি নিয়েও প্রশ্ন উঠতে শুরু করবে। এমন একটা গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে টোলগের খেলা নিয়ে সংশয় তৈরি হওয়ায় বাগান শিবিরে আশঙ্কার কালো মেঘ। অন্যদিকে খেতাবি লড়াই থেকে ছিটকে যাওয়া প্রয়াগের লক্ষ্য পয়েন্ট তালিকায় প্রথম পাঁচে থাকা। আর সেটা করতে হলে প্রয়াগকে মোহনবাগানের আশাভঙ্গ করতে হবে।
রণক্ষেত্র বদল হল। কিন্তু মোহনবাগানের পারফরম্যান্স কি বদল হবে? কল্যাণীতে প্রতিপক্ষ প্রয়াগ ইউনাইটেড। এই মুহূর্তে কাগজে কলমে প্রয়াগ ইউনাইটেড খানিকটা এগিয়ে মোহনবাগানের থেকে। কার্লোসহীন হলেও প্রয়াগ ইউনাইটেড কিন্তু চোটমুক্ত। অন্যদিকে ওডাফাহীন মোহনবাগানের কোচ করিম দল গড়তেই হিমশিম। ইউনাইটেড সিকিমকেও হারাতে না পারা মোহনবাগান কোচ ম্যাচের চব্বিশ ঘন্টা আগে থেকেই প্রচন্ড সতর্ক। রবিবাসরীয় কল্যানীতে মোহনবাগান-প্রয়াগ ইউনাইটেড ম্যাচকে ডার্বি ম্যাচের গুরুত্ব দিচ্ছেন করিম।
 
এদিন সকালে যুবভারতী থেকে টিম বাসে টোলগে-সাবিথরা পৌঁছন কল্যানীতে। সকালে স্টেডিয়ামেই অনুশীলন সারে গোটা দল। নির্বাসন থেকে ফিরে মোহনবাগান এখনও সাফল্যের রাস্তা হাতড়ে বেড়াচ্ছে। সালগাঁওকরের কাছে হার। আই লিগের সবচেয়ে দুর্বল দল ইউনাইটেডের সিকিমের বিরুদ্ধে অধরা জয়। এবার সামনে প্রতিপক্ষ শক্তিশালী প্রয়াগ ইউনাইটেড।
নির্বাসন থেকে মুক্তি পেলেও দুরবস্থা থেকে দল কবে মুক্তি পাবে,কেউ জানে না। সমর্থকদের ধৈর্য্যের বাঁধ যে ভাঙছে,তা ভালই টের পাচ্ছেন কোচ করিম। তাই দলের ফুটবলারদের কাছে তিনি যেমন দুরন্ত ফুটবল চাইছেন,ঠিক তেমনি সমর্থকদের কাছ থেকে চাইছেন দুর্দিনেও জোরালো সমর্থন। কল্যানীর মাঠ দেখে খুশি কোচ করিম। তাঁর দাবি,রবিবাসরীয় ডার্বি উপভোগ্য হবে।