ভাল আছেন কাশ্মীর বেড়াতে যাওয়া বাংলার পর্যটকরা ভাল আছেন কাশ্মীর বেড়াতে যাওয়া বাংলার পর্যটকরা

খোঁজ পাওয়া গেল পূর্ব মেদিনীপুর থেকে কাশ্মীরে বেড়াতে যাওয়া৬০  জনের পর্যটক দলের। জানা গেছে, অনন্তনাগের কাজিগঞ্জে একটি হোটেলে আছেন তাঁরা। পর্যটকদের মধ্যে একজন আজ বাড়িতে ফোন করেছিলেন। তাঁর মাধ্যমেই জানা যায়, বাকিরা সকলে সুরক্ষিত আছেন। হলদিয়ার সুতাহাটা, দুর্গাচক ও ভবানীপুর থানা এলাকার বিভিন্ন গ্রাম থেকে কাশ্মীরে গেছেন ওই পর্যটকরা। তবে ভূস্বর্গে ভয়ঙ্কর বন্যার পর থেকে কোনও খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না তাঁদের। উদ্বিগ্ন পরিবারের পক্ষ থেকে পুলিস-প্রশাসনের কাছে এনিয়ে বারবার দরবার করা হয়। শেষপর্যন্ত তাঁদের খোঁজ মেলায় স্বস্তি ফিরেছে।

জম্মু কাশ্মীরের বন্যায় মৃত ৭০,  বন্ধ বৈষ্ণবদেবী যাত্রা জম্মু কাশ্মীরের বন্যায় মৃত ৭০, বন্ধ বৈষ্ণবদেবী যাত্রা

ভয়াবহ বন্যায় বিপর্যস্ত জম্মু-কাশ্মীর। রাজৌরিতে হড়কা বানে একটি যাত্রীবোঝাই বাস ভেসে যাওয়ায় ৫০ জনের মৃত্যু হয়েছে। গত দুদিনে ইতিমধ্যে ৭০ জনের মৃত্যুর খবর মিলেছে। বন্যায় বিপর্যস্ত অনন্তনাগ, বারামুল্লা সহ একাধিক জেলা। জম্মুর পুঞ্চ, রেসাই এবং ডোডা এলাকাতেও বহু বাড়িঘর জলের তলায়। একটানা বৃষ্টিতে পরিস্থিতি আরও ভয়াবহ আকার নিয়েছে। বহু বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত। কুলগাঁওয়ের আস্থাল গ্রামে প্রায় পনেরশ বাড়ি এখন জলের তলায়। গ্রাম থেকে বাসিন্দাদের ইতিমধ্যে নিরাপদ জায়গায় সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। রাজৌরিতে দুর্ঘটনাগ্রস্ত বাসটি প্রায় পঞ্চাশ জন বরযাত্রী নিয়ে যাচ্ছিল। বাসে ছিল বর-কনেও। লাম-দারহাল-মৌশেরা রোডে গম্ভীর নদীর হড়কা বানে আচমকা ভেসে যায় বাসটি। সেনা জওয়ানরা ঘটনাস্থলে পৌছে চার জনকে উদ্ধার করেন, যাঁরা বাস থেকে বাইরে ঝাঁপিয়ে পড়েছিলেন। এঘটনায় গভীর শোক প্রকাশ করেছেন প্রদানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। নিহতদের পরিবারপিছু দু-লক্ষ টাকা করে ক্ষতিপূরণ ঘোষণা করা হয়েছে।