রথযাত্রায় লোকারন্য মাহেশ, মহিষাদল, গুপ্তিপাড়া

রথযাত্রায় লোকারন্য মাহেশ, মহিষাদল, গুপ্তিপাড়া

আজ রথযাত্রা। লোকারন্য মাহেশ , মহিষাদল , গুপ্তিপাড়া । রথের দড়ির সামান্য ছোঁয়া পেতে হুড়োহুড়ি। লক্ষাধিক মানুষ পথে নেমেছে জগন্নাথ , বলরাম , সুভদ্রা র রথ যাত্রায়। জমে উঠেছে মেলা। 

বছরের শেষ দিনে কলকাতা যেন ভিড় জমিয়েছে ইকো পার্কে

বছরের শেষ দিনে কলকাতা যেন ভিড় জমিয়েছে ইকো পার্কে

বছরের শেষ দিনে কলকাতা যেন ভিড় জমিয়েছে ইকো পার্কে। সকাল থেকেই ভিড়েভিড়াক্কার। ছোটদের হট্টগোল রয়েইছে। ক্লান্তি নেই বড়দেরও। বড় এলাকা হওয়ায় ইকো-পার্কের এক প্রান্ত থেকে আরেক প্রান্তে যায় এমনিতেই কেটে

প্রত্যেকবারের মত এবারও বছরের শেষ দিনে ভিড়ে থইথই চিড়িয়াখানা

প্রত্যেকবারের মত এবারও বছরের শেষ দিনে ভিড়ে থইথই চিড়িয়াখানা

ষোল থেকে সতেরো। হতে আর কয়েকঘণ্টার ব্যবধান। আর সেই ব্যবধানের সময়টাতে যে কে কী করে কাটাবে তাই নিয়ে গোটা ডিসেম্বর আলাপ আলোচনার শেষ থাকে না। পিকনিক, ঘুরতে যাওয়া কত কী। সঙ্গে অবশ্যই চিড়িয়াখানা।

ভাইফোঁটায় তিল ধারণের জায়গা নেই ছোট-বড় মিষ্টির দোকানে

ভাইফোঁটায় তিল ধারণের জায়গা নেই ছোট-বড় মিষ্টির দোকানে

আজ ভাইফোঁটা। ভাইয়ের মঙ্গল কামনায় ফোঁটা বোনেদের। পাতে সাজিয়ে দেবেন মিষ্টি। তাই সকাল থেকে মিষ্টির দোকানে লম্বা লাইন। টালা থেকে টালিগঞ্জ। বালি থেকে বালিগঞ্জ। তিল ধারণের জায়গা নেই ছোট-বড় মিষ্টির দোকানে

আলো ফুটতেই ভক্তের ঢল দক্ষিণ্বেশ্বর মন্দিরে

আলো ফুটতেই ভক্তের ঢল দক্ষিণ্বেশ্বর মন্দিরে

পঞ্জিকা মতে কালী পুজো রাতে। তবে ভোরের আলো ফুটতেই ভক্তের ঢল দক্ষিণ্বেশ্বর মন্দিরে। এবছর দক্ষিণেশ্বর মন্দিরের কালী পুজোর একশ বাষট্টি তম বছর। 

দুর্গাপুজোর শেষ রাতে বৃষ্টিকে হারিয়ে দিল মানুষই!

দুর্গাপুজোর শেষ রাতে বৃষ্টিকে হারিয়ে দিল মানুষই!

বৃষ্টি অসুরকে ফের বলে বলে হারাল আম জনতা। রাতশেষে ঘূর্ণাসুরের দাপট নয়, জয়ী জনগণেশই। বোধনের  দুপুর থেকেই ওড়িশায় ঘাঁটি গেঁড়ে সপ্তমী-অষ্টমীর পুজো বানচাল করার চেষ্টা করেছিল ঘূর্ণাসুর। কিন্তু তার

মেঘাসুরকে থোড়াই কেয়ার; অষ্টমীর রাত বাড়ছে, বাড়ছে ভিড়

মেঘাসুরকে থোড়াই কেয়ার; অষ্টমীর রাত বাড়ছে, বাড়ছে ভিড়

অষ্টমীর সকালে অঞ্জলি পর্ব সেরেই সবার চোখ ছিল আকাশের দিকে। বৃষ্টি হবে, না কি হবে না? এনিয়ে শুরু হয়েছিল আশা-নিরাশার দোলা। তবে বেশিক্ষণ অপেক্ষা করতে হয়নি। বেলা বাড়তেই শহরের এপ্রান্ত থেকে অন্যপ্রান্ত,

'ধর্মঘটের দিঘা'য় জমজমাট সমুদ্র সৈকত

'ধর্মঘটের দিঘা'য় জমজমাট সমুদ্র সৈকত

ধর্মঘটের অন্য ছবি দিঘায়। ধর্মঘটের দিন জমজমাট দিঘার সমুদ্র সৈকত। শুক্র, শনি ও রবি--এই তিনদিন পরপর ছুটি। তাই পর্যটকেরা ভিড় করেছেন সৈকত শহরে।

শুধুই পলিটিক্যাল? না না!!! ২১-এর মুডে রইল আরও অনেক কিছু

শুধুই পলিটিক্যাল? না না!!! ২১-এর মুডে রইল আরও অনেক কিছু

একুশের সমাবেশ। টোটালি পলিটিক্যাল ব্যাপারস্যাপার। তবু এরই মধ্যে একটু ভিন্ন স্বাদ কি নেই! এত্ত মানুষ। এত জায়গা থেকে এসেছেন। সবাই আলাদা। ডিফারেন্ট মুড তো থাকবেই।

ভিড়ের মাঝে মুখ্যমন্ত্রী ওদের দেখতেই পেলেন না!

ভিড়ের মাঝে মুখ্যমন্ত্রী ওদের দেখতেই পেলেন না!

মুখ্যমন্ত্রীর দেখা পেল না জঙ্গলমহলের বন্যপ্রাণ। মুখ্যমন্ত্রীও দেখতে পেলেন না ওঁদের। ২১ জুলাই উপলক্ষে বাঁকুড়ার সিমলিপাল থেকে এসেছিল একটি হাতি, দুটি ঘোড়া ও দুই ভালুক। কিন্তু নিরাপত্তার স্বার্থে

দ্বিতীয় ইনিংসে যেন আরও বেশি বাঁধনহারা আমজনতার উচ্ছ্বাস

দ্বিতীয় ইনিংসে যেন আরও বেশি বাঁধনহারা আমজনতার উচ্ছ্বাস

হেভিওয়েট সমস্ত রাজনৈতিক নেতানেত্রী, গণ্যমান্য অতিথি, টলি স্টার, সুপারস্টার, সব মিলিয়ে নক্ষত্র সমাবেশ শপথ অনুষ্ঠানে। তবু সবাইকে ছাপিয়ে গেল, সেই আমজনতা। জনজোয়ারে ভেসেই মুখ্যমন্ত্রী পৌঁছে গেলেন নবান্নে

ম্যাচের মধ্যেই দিব্যি অনিল কাপুরের ডান্স স্টেপ নকল বিরাট কোহলির!

ম্যাচের মধ্যেই দিব্যি অনিল কাপুরের ডান্স স্টেপ নকল বিরাট কোহলির!

বিরাট কোহলি এখন শুধু দুর্দান্ত ব্যাটিং করেই ক্রিকেটপ্রেমীদের মন ভরাচ্ছেন না। তার পাশাশাশি তিনি এমন সব কাজকর্ম করেন যে, দর্শকদের কাছে আরও পছন্দের ক্রিকেটার হয়ে উঠছেন তিনি।

শাহরুখের পর এবার ওয়াংখেড়ের `ভিলেন` কোহলি

গতবছর আইপিএলের ম্যাচ শেষে শাহরুখ খান ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামের নিরাপত্তারক্ষীদের সঙ্গে কথা কাটাকাটিতে জড়িয়ে পড়েছিলেন। এবার সেই ওয়াংখেরেতেই মুম্বই ইন্ডিয়ান্স বনাম রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্সের ম্যাচ শেষে