মদে 'স্বাধীনতা’ পেল মহিলারা

ধবার মদ কেনার উপর নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার বিষয়টি ঘোষণা করেন শ্রীলঙ্কার অর্থমন্ত্রী মঙ্গল সমারাবীরা। জানানো হয়, রাজ্যে শুল্ক দফতরে অনুমতি ছাড়াই মহিলারা মদের দোকানে কাজ করতে পারবেন।

Updated: Jan 15, 2018, 03:03 PM IST
মদে 'স্বাধীনতা’ পেল মহিলারা

নিজস্ব প্রতিনিধি: প্রায় ৪০ বছর পর উঠল নিষেধাজ্ঞা। প্রকাশ্য দিবালক কিংবা ঘন নিবিড় অন্ধকার, মদ কেনায় মহিলাদের ওপর থেকে সমস্ত নির্বাসন তুলে দিল শ্রীলঙ্কা।

এখন থেকে প্রকাশ্যেই মদ কিনতে পারবেন শ্রীলঙ্কার মহিলারা। ১৮ উর্দ্ধ যে কোনও মহিলার মদ কেনা বা মদের দোকানে কাজ করা নিয়ে রইল না আর কোনও নিষেধাজ্ঞা।

আরও পড়ুন- 'নিকৃষ্টতম' দেশগুলি থেকে শরণার্থী কেন নিচ্ছি?

শ্রীলঙ্কার সরকার জানিয়েছে, ১৯৭৯ সালে অনুমোদিত আইনে মহিলাদের প্রকাশ্যে মদ কেনার উপর নিষেধাজ্ঞা ছিল। সমাজে মহিলাদের অধিকারের হস্তক্ষেপ করছে এই আইন, এমনই অভিযোগ ছিল অনেকের।

এবার সেই নিষেধাজ্ঞা তুলে ‘নারী অধিকার’-কে স্বীকৃতি দিয়ে মহিলাদের অভিবাদন আদায় করল সরকার।

আরও পড়ুন- ছোট্ট জাইনাবের শাস্তি প্রার্থনায় সন্তানকে কোলে নিয়ে সংবাদ পাঠ অ্যাঙ্করের

বুধবার মদ কেনার উপর নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার বিষয়টি ঘোষণা করেন শ্রীলঙ্কার অর্থমন্ত্রী মঙ্গল সমারাবীরা। জানানো হয়, রাজ্যে শুল্ক দফতরে অনুমতি ছাড়াই মহিলারা মদের দোকানে কাজ করতে পারবেন। এমনকী লাইসেন্স প্রাপ্ত দোকান থেকে মদও কিনতে পারবেন তাঁরা।  যদিও অর্থমন্ত্রকের তরফে এও জানানো হয়, আগে এই আইন জোর করে মহিলাদের উপর আরোপ করা হয়নি।

আরও পড়ুন- আগ্নেয়গিরি মতো ফাটল অণ্ডকোষ, তারপর...

প্রসঙ্গত, ২০১৬-তে শ্রীলঙ্কার রাষ্ট্রপতি মৈথরিপালা সিরিসেন মদ বিরোধী প্রচার চালিয়েছিলে দেশ জুড়ে। তিনি সে সময় বলেছিলেন, মহিলাদের মধ্যেও মদ্যপান রীতিমতো বেড়ে গিয়েছে। অত্যাধিক মদ আসক্তি বিপদে ফেলতে পারে দেশকে। এই বিষয়ে সচেতন থাকা উচিত আমাদের।  

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. You can find out more by clicking this link

Close