আরাবুলের পাঁচ দিনের পুলিসি হেফাজত

Last Updated: Thursday, January 17, 2013 - 13:52

ভাঙড়কাণ্ডে গ্রফতার আরাবুল ইসলামকে পাঁচ দিনের পুলিসি হেফাজতের নির্দেশ দিল আদালত। আজ আরাবুল ইসলামকে বারুইপুর আদালতে পেশ করা হলে বিচারপতি এই নির্দেশ দেন।
বৃহস্পতিবার চাপের মুখে গ্রেফতার হয় প্রাক্তন বিধায়ক তথা তৃণমূল নেতা আরাবুল ইসলাম। রেজ্জাক মোল্লার ওপর হামলা সহ বামনঘাটার সিপিআইএম কর্মীদের ওপর আক্রমণের ঘটনায় গ্রেফতার তাঁকে গ্রেফতার করে জেলা পুলিস।
ক্যানিং পূর্বের বিধায়ক রেজ্জাক মোল্লার ওপর হামলার ঘটনায় অবশেষে চাপে পড়ে ভাঙড়ের প্রাক্তন বিধায়ক আরাবুল ইসলামকে গ্রেফতার করল পুলিস। এমনটাই মনে করছে রাজনৈতিক মহল। তাঁর বিরুদ্ধে দুটি এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। ভারতীয় দন্ডবিধির একাধিক ধারা আনা হয়েছে তাঁর বিরুদ্ধে। এরমধ্যে চারটি জামিন অযোগ্য ধারা রয়েছে। যেমন, খুনের চেষ্টা, অস্ত্র মামলা, বিস্ফোরক প্রতিরোধক আইন এবং মারধরের অভিযোগ। এছাড়াও সংঘর্ষ বাধানো এবং গাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগ আনা হয়েছে আরাবুল ইসলামের বিরুদ্ধে।
আদালতে পেশের পর তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয় বারুইপুর হাসপাতালে। সম্প্রতি রাজ্যের পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছিলেন রাজ্যপাল এম কে নারায়ণন। রাজ্যে 'গুন্ডারাজ' চলছে বলে মন্তব্য করে প্রশাসনকে নিরপেক্ষ হওয়ার কথা বলেছিলেন তিনি। রাজনৈতিক মহলের ধারনা, এরপরই প্রশাসনিক মহলে তত্‍‍‍‍‍‍পরতা শুরু হয়ে যায় আরাবুলকে গ্রেফতারের বিষয়টি নিয়ে। তাঁর বিরুদ্ধে আরও আটটি মামলা রয়েছে। ভাঙড়ে সিপিআইএম কর্মীদের ওপরও হামলার অভিযোগ রয়েছে আরাবুলের বিরুদ্ধে।



First Published: Thursday, January 17, 2013 - 17:10


comments powered by Disqus