উত্তপ্ত পাহাড়ে বনধের ডাক মোর্চার

Last Updated: Wednesday, February 6, 2013 - 21:01

ক্রমশ উত্তপ্ত হচ্ছে পাহাড়ের পরিস্থিতি। রাজ্য সরকার পৃথক লেপচা উন্নয়ন পর্ষদ গঠনের সিদ্ধান্ত নেওয়ার ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই শনিবার পাহাড়ে ১২ ঘণ্টার বনধের ডাক দিল গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা। 
পৃথক লেপচা উন্নয়ন পর্ষদ গঠনে মঙ্গলবার সবুজ সবুজ সংকেত দিয়েছে রাজ্য মন্ত্রিসভা। প্রতিবাদে আগামী শনিবার পাহাড়ে ১২ ঘণ্টার বনধের ডাক দিল মোর্চা। 
অবিলম্বে লেপচা উন্নয়ন পর্ষদ বাতিলের দাবি জানিয়ে মোর্চা সভাপতি বিমল গুরুং কেন্দ্র ও রাজ্যকে চিঠিও দেবেন। প্রয়োজনে সুপ্রিম কোর্টে যাওয়ার কথাও জানিয়ে দিয়েছেন মোর্চা সভাপতি। 
মোর্চা পাহাড় বনধের কথা ঘোষণার পরই মহাকরণে স্বরাষ্ট্রসচিব, রাজ্য পুলিসের ডিজির সঙ্গে জরুরি বৈঠকে বসেন উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন মন্ত্রী গৌতম দেবও। বৈঠকে ছিলেন আদিবাসী বিকাশ পরিষদের নেতা জন বারলাও।
২৯ জানুয়ারি দার্জিলিঙে মুখ্যমন্ত্রীর সামনেই পৃথক গোর্খাল্যান্ডের দাবিতে সরব হন মোর্চা সমর্থকরা। তারপরেই লেপচা প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক করেন মুখ্যমন্ত্রী। এবং শেষ পর্যন্ত জিটিএ-র সঙ্গে কথা না বলেই লেপচা উন্নয়ন পর্যদ গঠনের সিদ্ধান্ত। সরকারের সিদ্ধান্তের কড়া সমালোচনা করেছেন বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান। 
এমনিতেই পৃথক গোর্খাল্যান্ডের দাবিতে সুর ক্রমশ চড়াচ্ছিল মোর্চা। তার উপর পৃথক লেপচা পরিষদ গঠনের কথা  ঘোষণা করে রাজ্য সরকার জিটিএ চুক্তি ভঙ্গ করেছে বলে মোর্চার অভিযোগ। অর্থাত্ রাজ্য সরকারের সঙ্গে গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার সংঘাত ক্রমশ বাড়ছে। 
এর পরেও মুখ্যমন্ত্রী বলবেন, পাহাড় হাসছে?



First Published: Wednesday, February 6, 2013 - 21:01
comments powered by Disqus