''ঋতুমতী হওয়ার পর বাড়িতে পার্টি হয়েছিল'' প্রথম ঋতুস্রাবের অভিজ্ঞতা জানালেন রাধিকা

'প্যাডম্যান' সিনেমার গান প্রকাশ অনুষ্ঠানে এসে সে অভিজ্ঞতাই সকলের সঙ্গে ভাগ করে নিয়েছেন রাধিকা। তিনি বলেন, তাঁর বাড়ির বেশিরভাগ সদস্যই চিকিৎসক। আর তাই প্রথম থেকেই তাঁকে এবিষয়ে স্পষ্ট জানানো হয়েছিল। তবে প্রথম ঋতুমতী হওয়ার পর তাঁরও ভয় করেছিল বৈকি। কিন্তু তাঁর সে ভয় ভাঙিয়ে দিয়েছিলেন বাড়ির অন্যান্য সদস্যরা। 

Updated By: Dec 21, 2017, 09:59 PM IST
''ঋতুমতী হওয়ার পর বাড়িতে পার্টি হয়েছিল'' প্রথম ঋতুস্রাবের অভিজ্ঞতা জানালেন রাধিকা

নিজস্ব প্রতিবেদন: এদেশে ঋতুমতী হওয়া মেয়ের সঙ্গে অস্পৃশ্যের মতোই ব্যবহার করা হয়। সে কি যেন এক অপরাধ করে ফেলেছে! ভুলেও যেন সে বাড়ির কোনও পুরুষকে একথা না বলে, ঋতুমতী হওয়ার প্রথম দিনেই মেয়েকে স্পষ্ট বলে দেন তাঁর মা-ই। গ্রামেগঞ্জে চিত্রটা তো আরও কঠিন। সেখানে ঋতুমতী মেয়েদের জন্য আলাদা থাকা-খাওয়ার ব্যবস্থা হয়। আর, তার শারীরিক সুরক্ষার বিষয় দেখা তো দুরস্ত। গ্রামে স্যানিটারি ন্যাপকিন কেনা তো দূরের কথা, বিন্দুমাত্র স্বাস্থ্যবিধিও মেনে চলা হয়না। শহরের চিত্রটাই বা আলাদা কোথায়? এখনেও তো দোকানে প্যাড কিনতে গিয়ে কালো প্যাকেট কিংবা খবরের কাগজে মুড়ে আনতে হয়। কি যেন এক অপরাধ, যে লুকোতে হবে সবসময়। ভুলেই যান সকলে মেয়েদের রজঃস্বলা হওয়ার অর্থই হল মাতৃত্বের প্রথম ধাপ। এভাবেই একজন নারী প্রাণ সৃষ্টির প্রথম অধিকার পায়। 

তবে অভিনেত্রী রাধিকা আপ্তের ক্ষেত্রে এমনটা ঘটেনি। তাঁর প্রথম রজঃস্বলা হওয়ার অভিজ্ঞতা আর পাঁচজন মেয়ের থেকে একেবারেই আলাদা। 'প্যাডম্যান' সিনেমার গান প্রকাশ অনুষ্ঠানে এসে সে অভিজ্ঞতাই সকলের সঙ্গে ভাগ করে নিয়েছেন রাধিকা। তিনি বলেন, তাঁর বাড়ির বেশিরভাগ সদস্যই চিকিৎসক। আর তাই প্রথম থেকেই তাঁকে এবিষয়ে স্পষ্ট জানানো হয়েছিল। তবে প্রথম ঋতুমতী হওয়ার পর তাঁরও ভয় করেছিল বৈকি। কিন্তু তাঁর সে ভয় ভাঙিয়ে দিয়েছিলেন বাড়ির অন্যান্য সদস্যরা। 

রাধিকা আরও জানান, তাঁর প্রথম ঋতুমতী হওয়ার খবরে সকলেই তাঁকে উপহার দিয়েছিল। বাড়িতে একপ্রকার পার্টির আয়োজন করা হয়েছিল। 

অক্ষয় কুমার ও রাধিকা আপ্তে অভিনীত আপকামিং ফিল্ম 'প্যাডম্যান', ঋতুস্রাব নিয়ে থাকা বিভিন্ন দ্বিধা, কুসংস্কার, রক্ষণশীলতাগুলিই ভাঙাতে সক্ষম হবে বলে এদিন আশা প্রকাশ করেন অভিনেত্রী। এদিন 'প্যাডম্যান'-এর গান প্রকাশ অনুষ্ঠানে রাধিকা ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন অক্ষয় কুমার ও টুইঙ্কেল খান্না।