বন্ডে সই করিয়ে তবেই Covaxin, কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের নির্দেশিকায় বিতর্ক

রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরকে পাঠানো নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, কোভ্যাক্সিন টিকা দেওয়ার আগে আবশ্যিক ভাবে টিকা গ্রহণকারীর সম্মতিপত্রে লিখিত অনুমোদন নিতে হবে। 

Updated By: Jan 24, 2021, 02:25 PM IST
বন্ডে সই করিয়ে তবেই Covaxin, কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের নির্দেশিকায় বিতর্ক

নিজস্ব প্রতিবেদন: শুরু থেকে কোভ্যাক্সিন নিয়ে দ্বন্দ্ব ছিলই। কার্যকারিতা নিয়ে উঠেছিল একাধিক প্রশ্ন। এবার কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের নির্দেশিকায় ফের বিতর্ক। টিকা নিতে গেলে সই করতে হবে সম্মতি পত্রে। সম্প্রতি এমনই নির্দেশিকা জারি করেছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক। রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরকে পাঠানো নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, কোভ্যাক্সিন টিকা দেওয়ার আগে আবশ্যিক ভাবে টিকা গ্রহণকারীর সম্মতিপত্রে লিখিত অনুমোদন নিতে হবে। পাশাপাশি যিনি টিকা নিচ্ছেন তাঁর ওপর ৩ মাস নজরদারি চালাতে হবে রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরকে। 

আরও পড়ুন: অসুস্থ Arup Roy, বুকে ব্যথা নিয়ে উডল্যান্ডসে মন্ত্রী

আর সরকারের এই নির্দেশিকা ঘিরে শুরু হয়েছে  বিতর্ক। প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে কোভ্যাক্সিন কার্যকারিতা নিয়ে। প্রশ্ন, তবে কি সুরক্ষিত নয় কোভ্যাক্সিন? যদি টিকা সম্পূর্ণ সুরক্ষিত না হয়  তাহলে কেন এত তাড়াতাড়ি অনুমোদন দেওয়া হল, সেই প্রশ্নও উঠেছে। এর আগেই ভারত বায়োটেকের কাছে ৫৫ লাখ কোভ্যাক্সিনের ডোজ অর্ডার করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। একই সঙ্গে সরকার জানিয়ে দিয়েছে কোভ্যাক্সিনের ডোজ নেওয়ার পর কারও শরীরে পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া বা গুরুতর কোনও সমস্যা দেখা দিলে ক্ষতিপূরণ দিতে হবে ভারত বায়োটেককে।

প্রথম ও দ্বিতীয় দফার ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে দেখা গিয়েছে, কোভ্যাক্সিন শরীরে অ্যান্টিবডি তৈরি করতে সাহায্য করছে৷ তা সত্ত্বেও ক্লিনিক্যালি এই টিকার কার্যকারিতা এখনও প্রমাণিত হয়নি৷ এ ছাড়াও তৃতীয় দফার ট্রায়ালের রিপোর্ট এখনও পর্যবেক্ষণ করে দেখা হচ্ছে। পাশাপাশি অনুমোদন ফর্মে বলা হয়েছে, "টিকা গ্রহণের অর্থ এই নয় যে, অন্যান্য সতর্কতা মূলক পদক্ষেপ গ্রহণ করার প্রয়োজন নেই।"