অবসরের পরেও তদন্তের মুখে Alapan; জবাব না দিলে একতরফা ব্যবস্থা, কড়া কেন্দ্র

মুখ্যসচিব পদে আলাপনের কার্যকালের মেয়াদ ছিল ৩১ মে পর্যন্ত। ওই দিনই ইস্তফা দেন। 

Updated By: Jun 21, 2021, 06:30 PM IST
অবসরের পরেও তদন্তের মুখে Alapan; জবাব না দিলে একতরফা ব্যবস্থা, কড়া কেন্দ্র

নিজস্ব প্রতিবেদন: আশঙ্কা ছিলই। সেই আশঙ্কা মিলে গেল। অবসর নিলেও শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগে আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Alapan Bandopadhyay) বিরুদ্ধে তদন্তের সিদ্ধান্ত নিল কেন্দ্রীয় কর্মিবর্গ ও প্রশিক্ষণ দফতর। ৩০ দিনের মধ্যে আত্মপক্ষসমর্থন করতে হবে রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যসচিবকে। অন্যথায় অবসরকালীন সুযোগ-সুবিধা থেকে বঞ্চিত হতে পারেন তিনি। 

আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের আচরণ ও ব্যবহার নিয়ে প্রশ্ন তুলে অল ইন্ডিয়া সার্ভিসের (শৃঙ্খলা ও আবেদন) ৮ নম্বর রুল অনুযায়ী তাঁর বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণে তৎপর হয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। কেন্দ্রের চিঠি পাওয়ার ৩০ দিনের মধ্যে আত্মপক্ষসমর্থন করতে হবে প্রাক্তন মুখ্যসচিবকে। তিনি সশরীরে হাজিরা দিয়ে ব্যাখ্যা দিতে চান কি না তাও জানাতে হবে। নির্ধারিত সময়ে লিখিত জবাব বা সশরীরে উপস্থিত না হলে একতরফা পদক্ষেপ করতে পারে সংশ্লিষ্ট তদন্ত কর্তৃপক্ষ।    

বলে রাখি, কলাইকুণ্ডায় প্রধানমন্ত্রী বৈঠকে থাকেননি তৎকালীন মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় (Alapan Bandopadhyay)। তাঁকে বিপর্যয় মোকাবিলা আইনে শো-কজ করে কেন্দ্র। বলা হয়, 'আকাশপথে ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের ক্ষয়ক্ষতি পরিদর্শনের পর কলাইকুণ্ডা বিমানঘাঁটিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে বৈঠকে থাকার কথা ছিল মুখ্যমন্ত্রী ও মুখ্যসচিবের। তাঁদের জন্য প্রধানমন্ত্রী ও তাঁর সঙ্গীরা প্রায় ১৫ মিনিট অপেক্ষা করেন। বৈঠকে অংশ নেবেন কিনা মুখ্যসচিবের কাছে তা জানতে চান এক আধিকারিক। তার পরই মুখ্যসচিবকে সঙ্গে নিয়ে ঢোকেন মুখ্যমন্ত্রী। কিছুক্ষণ পরই বেরিয়ে যান তাঁরা। প্রধানমন্ত্রীর বৈঠকে অনুপস্থিত থেকে সরকারি কর্মী হিসেবে বিপযর্য় মোকাবিলা আইনে ৫১ (বি) লঙ্ঘন করেছেন আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়।'' কেন তাঁর বিরুদ্ধে বিপর্যয় মোকাবিলা আইনে ৫১ ধারায় ব্যবস্থা নেওয়া হবে না, তা জানতে চায় কেন্দ্র। আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়ে দেন, দিঘায় পূর্বনিধারিত প্রশাসনিক বৈঠক ছিল তাঁর। তাঁর হয়ে প্রধানমন্ত্রীর কাছে প্রস্থানের অনুমতি চেয়ে নিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। রাজ্যের মুখ্যসচিব হিসেবে মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ পালন তাঁর কর্তব্য। 

মুখ্যসচিব পদে আলাপনের কার্যকালের মেয়াদ ছিল ৩১ মে পর্যন্ত। মুখ্যমন্ত্রীর আবেদনে তাঁর মেয়াদ ৩ মাস বাড়ায় কেন্দ্রীয় সরকার। কলাইকুণ্ডার ঘটনার পর দিল্লিতে বদলি করা হয় আলাপনকে। টানাপোড়েনে বর্ধিত কার্যকাল আর গ্রহণ করেননি তিনি। ৩১ মে অবসর নেন। তাঁকে ৩ বছরের জন্য মুখ্যমন্ত্রীর প্রধান উপদেষ্টা হিসেবে নিয়োগ করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। জানান,'১ জুন থেকে মুখ্যমন্ত্রীর মুখ্য উপদেষ্টা হিসেবে নিয়োগ করা হচ্ছে আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে। তাঁর মেয়াদ ৩ বছরের।'

আরও পড়ুন- পুজোর আগে ও পরে মার্চের মধ্যে রাজ্যে ৩২ হাজার শিক্ষক নিয়োগ, বড় ঘোষণা Mamata-র

(Zee 24 Ghanta App দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App)