এসো রাহুল, ও শতরূপ আর ও মধুজা

২০১৬, ২৭ মার্চ, বুধবার, বিকেল ৫টা। পার্কসার্কাস ময়দান। তেরঙ্গায় মোড়া পার্কসার্কাস ময়দান। তখনও মাইকে কংগ্রেস নেতা বলছেন, 'রাহুল জি রেস কোর্স, ময়দান পে আ গয়ে হ্যায়'। হঠাৎ আম জনতার উচ্ছাস। ধবধবে সাদা পাঞ্জাবী আর পায়জামা পরা এক 'কমিউনিস্ট' মঞ্চে উঠছেন। না উনি রাহুল গান্ধী নন। পশ্চিমবঙ্গের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। আজ অনেকটা আগেই সভাস্থানে। অপেক্ষা করছেন। বঙ্গ রাজনীতির জোট মঞ্চের সব থেকে বিরল ছবি দেখার জন্য অপেক্ষা করছিল গোটা রাজ্য, একই মঞ্চে রাহুল গান্ধী ও বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। রাহুল গান্ধী মঞ্চে উঠেই প্রথম এগিয়ে গেলেন বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের দিকে। তরুণ রাহুলের দিকে হাত বাড়িয়ে দিলেন বৃদ্ধ বুদ্ধও, মুখে অম্লান হাসি আর কাপা কাপা ঠোঁটে বললেন, "এসো রাহুল"।

Updated By: Apr 27, 2016, 08:53 PM IST
এসো রাহুল, ও শতরূপ আর ও মধুজা
ছবি- সৌরভ পাল

পার্কসার্কাস: ২০১৬, ২৭ মার্চ, বুধবার, বিকেল ৫টা। পার্কসার্কাস ময়দান। তেরঙ্গায় মোড়া পার্কসার্কাস ময়দান। তখনও মাইকে কংগ্রেস নেতা বলছেন, 'রাহুল জি রেস কোর্স, ময়দান পে আ গয়ে হ্যায়'। হঠাৎ আম জনতার উচ্ছাস। ধবধবে সাদা পাঞ্জাবী আর পায়জামা পরা এক 'কমিউনিস্ট' মঞ্চে উঠছেন। না উনি রাহুল গান্ধী নন। পশ্চিমবঙ্গের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। আজ অনেকটা আগেই সভাস্থানে। অপেক্ষা করছেন। বঙ্গ রাজনীতির জোট মঞ্চের সব থেকে বিরল ছবি দেখার জন্য অপেক্ষা করছিল গোটা রাজ্য, একই মঞ্চে রাহুল গান্ধী ও বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। রাহুল গান্ধী মঞ্চে উঠেই প্রথম এগিয়ে গেলেন বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের দিকে। তরুণ রাহুলের দিকে হাত বাড়িয়ে দিলেন বৃদ্ধ বুদ্ধও, মুখে অম্লান হাসি আর কাপা কাপা ঠোঁটে বললেন, "এসো রাহুল"।

বয়সজনিত কারণে, দলের সর্বোচ্চ স্তর থেকে নিজেই সরে এসেছেন। পলিটবুরো থেকে বঙ্গ সিপিএমের রাজ্য কমিটি। তবে বরাবরই দলের তরুণদের এগিয়ে দিতে অগ্রণী ভূমিকা নিয়েছেন। সিপিএম অন্দরে তো এও শোনা যায়, তরুণ সাংসদ ঋতব্রত বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁরই ভাব শিষ্য। এমনকি নিজের জায়গা ছেড়ে দিয়ে পলিটবুরোতে এনেছেন মহম্মদ সেলিমকে। রাজ্যের ভোট প্রচারেও তরুণ ছাত্র নেতা শতরূপের কেন্দ্রে থেকেই মহামিছিল করেছেন তিনি। তাই এবার আর ভুল নয়। দেশের তরুণ মুখের সঙ্গে রাজ্যের তরুণ তুর্কিদের হাতে হাত দিয়ে দিলেন স্বয়ং বুদ্ধই। মঞ্চেই ডেকে নিলেন মধুজা সেনরায় (টালিগঞ্জ থেকে সিপিএইএম প্রার্থী) ও শতরূপ ঘোষকে (কসবা থেকে সিপিএইএম প্রার্থী), হাতে হাত তো বটেই সঙ্গে রাজনীতির মেল বন্ধনও করিয়ে দিলেন। রাহুলও হাত বাড়িয়ে 'হ্যান্ড শেক'।