Alapan Bandyopadhyay: জরুরিভিত্তিতে শুনানি, আলাপন মামলায় রায়দান স্থগিত হাইকোর্টে

ক্যাটের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আদালতের দ্বারস্থ রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যসচিব।

Updated By: Oct 27, 2021, 04:54 PM IST
Alapan Bandyopadhyay: জরুরিভিত্তিতে শুনানি, আলাপন মামলায় রায়দান স্থগিত হাইকোর্টে

নিজস্ব প্রতিবেদন: ক্যাটের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে মামলা করেছেন পশ্চিমবঙ্গের প্রাক্তন মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়। জরুরিভিত্তিতে মামলার শুনানি শেষ হল বিচারপতি সব্যসাচী ভট্টাচার্যের ডিভিশন বেঞ্চে। মঙ্গলবার পর্যন্ত রায়দান স্থগিত রাখল আদালত।

তিন মাসের 'এক্সটেনশন' নেননি। নির্দিষ্ট দিনেই রাজ্যের মুখ্যসচিব পদ থেকে অবসর নিয়েছিলেন আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়। অবসর নেওয়ার পর তাঁকে মুখ্যমন্ত্রীর মুখ্য উপদেষ্টা পদে নিয়োগ করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু অবসরপ্রাপ্ত কর্মী হিসেবে যে সুযোগ-সুবিধা পাওয়ার কথা, আলাপন তা পাচ্ছেন না বলে অভিযোগ। কেন? সেন্ট্রাল অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ ট্রাইব্যুনাল বা ক্যাটের দ্বারস্থ হন অবসপ্রাপ্ত এই আইপিএস অফিসার। ২২ অক্টোবর সেই মামলাটি কলকাতা বেঞ্চ থেকে তড়িঘড়ি পাঠিয়ে দেওয়া হয় দিল্লিতে, ক্যাটের প্রিন্সিপাল বেঞ্চে। 

আরও পড়ুন: Fire Crackers: কালীপুজো-দীপাবলিতে কীভাবে বাজি ফাটানো যাবে? নিয়ম জানাল রাজ্য দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদ

ক্যাটের এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে কলকাতা হাইকোর্টে মামলা করেছেন রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যসচিব। এদিন মামলার শুনানিতে কেন্দ্রের কর্মিবর্গ মন্ত্রকের আইনজীবীর কাছে বিচারপতি সব্যসাচী ভট্টাচার্য জানতে চান, ‘আপনাদের কি মনে হয় না যে আপনাদের এই পদক্ষেপের মাধ্যমে মামলাকারীকে ন্যায়বিচার থেকে বঞ্চিত করা হয়েছে? আলাপনবাবুর দ্রুততা ছিল বলেই তিনি অবকাশের মধ্যে সেন্ট্রাল অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ ট্রাইব্যুনালের দ্বারস্থ হয়েছিলেন। কিন্তু আপনাদের তাড়াহুড়ো করার কি দরকার ছিল'? উত্তরে  কর্মিবর্গ মন্ত্রকের আইনজীবী আদালতকে জানান, 'যে কোনও বেঞ্চে মামলা স্থানান্তর করার ক্ষমতা রয়েছে ক্যাটের চেয়ারম্যানের। দিল্লিতে আলাপনের সব নথি রয়েছে'। বিচারপতির পাল্টা প্রশ্ন, ‘সেন্ট্রাল অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ ট্রাইব্যুনালের প্রিন্সিপাল বেঞ্চের চেয়ারম্যান কী করে জানলেন যে, আলাপনবাবুর বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগের সব নথি দিল্লিতে আছে'? শুনানি শেষে মঙ্গলবার পর্যন্ত রায়দান স্থগিত রাখা হয়।

আরও পড়ুন: আবার কমল BJP-র বিধায়ক সংখ্যা, পদ্ম ছেড়ে ঘাসফুলে যোগ কৃষ্ণ কল্যানির

এদিকে ক্যাটের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের-র পর আবার প্রাণনাশের হুমকি দেওয়া হয়েছে আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে। স্পিড পোস্টে হুমকি-চিঠি পাঠানো হয়েছে তাঁর স্ত্রী, কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সোনালি চক্রবর্তী বন্দ্যোপাধ্য়ায়ের (Sonali Chakravarti Banerjee) নামে, বিশ্ববিদ্যালয়ের ঠিকানায়। হেয়ার স্ট্রিট থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। তদন্তে নেমেছে কলকাতা পুলিসের গোয়েন্দা বিভাগ।

(Zee 24 Ghanta App : দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App)