সাংসদের পর উত্তরের দুজন BJP বিধায়কের মুখেও পৃথক রাজ্য, মানুষের ক্ষোভ আছে: Dilip

বিজেপি বাংলা ভাগ চায় না বলেও দলের বিধায়কদের পাশে দাঁড়িয়েছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh)। 

Updated By: Jun 22, 2021, 09:32 PM IST
সাংসদের পর উত্তরের দুজন BJP বিধায়কের মুখেও পৃথক রাজ্য, মানুষের ক্ষোভ আছে: Dilip

নিজস্ব প্রতিবেদন: জন বার্লার পর উত্তরবঙ্গের দুজন বিজেপি বিধায়কের মুখেও আলাদা রাজ্যের দাবি। আলিপুরদুয়ারের বিজেপি সাংসদের দাবিকে সমর্থন করেছেন দার্জিলিং জেলার মাটিগাড়া-নকশালবাড়ির বিধায়ক আনন্দময় বর্মন (Anandamoy Barman)। সরাসরি না হলেও ঘুরিয়ে দলের সাংসদের পাশে দাঁড়িয়েছেন ডাবগ্রাম-ফুলবাড়ির বিজেপি বিধায়ক শিখা চট্টোপাধ্যায় (Sikha Chatterjee)। পৃথক রাজ্য গঠনের দাবি মানুষের আবেগের সঙ্গে সম্পৃক্ত বলে দাবি করেছেন দুজন বিধায়ক।  

শিখা চট্টোপাধ্যায় (Sikha Chatterjee) বলেন,'আলাদা রাজ্য মানুষ কখন চায়, যখন উন্নয়ন হয় না। উত্তরবঙ্গ আলাদা রাজ্যে দাবি আদতে মানুষের আবেগ। কেন চাইছে? এটা বুঝতে হবে সরকারকে। এখানে কোনও সরকার উন্নয়ন করেনি। এখানে হাসপাতাল, শিল্প কিছুই নেই। কোনওরকম ব্যবস্থা নেই। এখানকার মানুষকে ধোঁকা দিতে উত্তরকন্যা তৈরি করে রেখেছে। এখানে কোনও দফতরে কাজ হয় না। কলকাতায় যেতে হচ্ছে। সেখানে একাধিক দিন থাকতে হচ্ছে। অফিসে কাজ না হলে ফিরে আসতে হচ্ছে। মানুষকে এই বিষয়গুলি ভাবাচ্ছে।'       

আর এক বিধায়ক আনন্দময় বর্মনের (Anandamoy Barman) কথায়,''এইমস সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে দক্ষিণবঙ্গে। উত্তরকন্যা পর্যটনস্থলে পরিণত হয়েছে। উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন দফতরও মুখ্যমন্ত্রীর হাতে। উত্তরবঙ্গের প্রতি অবহেলা ও বঞ্চনা করা হয়েছে। স্বাধীনতার পর থেকে মুখ্যমন্ত্রী, উপমুখ্যমন্ত্রী বা কোনও গুরুত্বপূর্ণ দফতর পায়নি উত্তরবঙ্গ। আমরা মানুষের দাবির কথাই তুলে ধরেছি। এটা মানুষের দাবি।'' 

বিজেপি বাংলা ভাগ চায় না বলেও দলের বিধায়কদের পাশে দাঁড়িয়েছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh)। তাঁর কথায়,'স্বাধীনতার পর থেকে অনেক রাজ্য ভাগ হয়েছে। অতিসম্প্রতি জম্মু-কাশ্মীর ভাগ হয়েছে। তবে বাংলা ভাগ চায় না বিজেপি। অনেক মানুষের ইচ্ছা থাকে, আমি আমার মতো থাকব। এই জেলাগুলি দূরবর্তী। সেখানকার মানুষ নিজেদের বঞ্চিত মনে করছেন। আর জেলাগুলির সত্যি সত্যি উন্নয়ন হয়নি। সেজন্য ওঁরা একথা বলছেন। তবে দলের নীতি মেনেই কাজ করতে হবে। বঙ্গভঙ্গের দাবি কেউ করেনি। উত্তর-দক্ষিণের অনেক এলাকা বঞ্চিত। অধিকার না পাওয়ায় ক্ষোভ আছে। জনপ্রতিনিধি হিসেবে মানুষের কথা বলেছেন। রাজ্য সরকার কাজ করে দেখাক।'

আরও পড়ুন- আগামী ৭ জুলাই রাজ্যে পূর্ণাঙ্গ বাজেট পেশ করতে পারেন পরিষদীয় মন্ত্রী Partha

(Zee 24 Ghanta App দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App)