ধর্ষণ নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য, দেবকে শোকজ নোটিস পাঠাল নির্বাচন কমিশন, শোকজ সৌগতকেও

বিতর্কিত মন্তব্যের প্রেক্ষিতে তৃণমূলের দুই প্রার্থী সৌগত রায় এবং দেবকে শোকজ নোটিস পাঠাল নির্বাচন কমিশন। এক সাক্ষাত্কারে ধর্ষণ নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করেছিলেন ঘাটালের তৃণমূল প্রার্থী অভিনেতা দেব। তাঁর মন্তব্য নিয়ে তোলপাড় শুরু হয়েছে যায়। এরপরই পেপার কাটিং চেয়ে পাঠায় নির্বাচন কমিশন। এদিকে বরানগরে দলের কর্মিসভায় রিগিং নিয়ে মন্তব্য করে বিতর্কে জড়িয়ে পড়েন দমদমের তৃণমূল প্রার্থী সৌগত রায়। কমিশনে অভিয়োগ জানান বিরোধীরা। কর্মিসভার ভিডিও ফুটেজ চেয়ে পাঠায় কমিশন। এরপর আজই নোটিস পাঠালো কমিশন।

Updated By: Mar 28, 2014, 10:07 PM IST

বিতর্কিত মন্তব্যের প্রেক্ষিতে তৃণমূলের দুই প্রার্থী সৌগত রায় এবং দেবকে শোকজ নোটিস পাঠাল নির্বাচন কমিশন। এক সাক্ষাত্কারে ধর্ষণ নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করেছিলেন ঘাটালের তৃণমূল প্রার্থী অভিনেতা দেব। তাঁর মন্তব্য নিয়ে তোলপাড় শুরু হয়েছে যায়। এরপরই পেপার কাটিং চেয়ে পাঠায় নির্বাচন কমিশন। এদিকে বরানগরে দলের কর্মিসভায় রিগিং নিয়ে মন্তব্য করে বিতর্কে জড়িয়ে পড়েন দমদমের তৃণমূল প্রার্থী সৌগত রায়। কমিশনে অভিয়োগ জানান বিরোধীরা। কর্মিসভার ভিডিও ফুটেজ চেয়ে পাঠায় কমিশন। এরপর আজই নোটিস পাঠালো কমিশন।

বিতর্কিত মন্তব্য করে নির্বাচন কমিশনের নজরে ঘাটালের তৃণমূল প্রার্থী চিত্রতারকা দেব। একটি পত্রিকায় ধর্ষণের মত স্পর্শকাতর বিষয় নিয়ে বক্তব্য পেশ করার অভিযোগের তদন্ত করতে ওই পত্রিকার কাছ থেকে সিডি চেয়ে পাঠায় কমিশন। অভিযোগ প্রমাণিত হলে কমিশন দেবের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নিতে পারে। এমনকী, অভিযোগপ্রমাণিত হলে মহিলাদের বিরুদ্ধে কটূক্তি করার জন্য এই টলিউট স্টারের তিন বছরের জেল এবং জরিমানাও হতে পারে।

একটি দৈনিকে দেবের মন্তব্য নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়। মহিলাদের প্রতি দেব অবমাননাকর মন্তব্য করেছেন বলে নির্বাচন কমিশনের অভিযোগ জানায় সিপিআইএমের মহিলা সংগঠন। এর পরেই সেক্ষেত্রে জেলাশাসক পুলিসকে দেবের বিরুদ্ধে মামলা করার নির্দেশ দিতে পারেন। বিতর্কিত মন্তব্যের জেরে নির্বাচনের কমিশনের শাস্তির মুখে পড়তে পারেন অনুব্রত মণ্ডল, আনিসুর রহমানও।

যদিও পরে নিজের বক্তব্যের জন্য টুইটারে ক্ষমা চেয়ে নেন দেব। "ভোটের উত্তেজনা ধর্ষণের মত, হয় চিত্কার কর নয় উপভোগ কর", এই বক্তব্য নিয়েই ওঠে বিতর্কের ঝড়।