'প্রাপ্য আদায়ে আন্দোলনে নামতে হচ্ছে শিক্ষকদের, এটা দুঃখজনক' বিবৃতিতে রাজ্যকে খোঁচা ধনখড়ের

সোমবার বিবৃতি জারি করে রাজ্যকে পরোক্ষে খোঁচা ধনখড়ের।

Updated By: Nov 11, 2019, 04:03 PM IST
'প্রাপ্য আদায়ে আন্দোলনে নামতে হচ্ছে শিক্ষকদের, এটা দুঃখজনক' বিবৃতিতে রাজ্যকে খোঁচা ধনখড়ের

নিজস্ব প্রতিবেদন: এবার পার্শ্বশিক্ষকদের ধরনা নিয়ে সরব হলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। "প্রাপ্য আদায়ে আন্দোলনে নামতে হচ্ছে শিক্ষকদের এটা দুঃখজনক" সোমবার এমনটাই জানালেন তিনি। পার্শ্বশিক্ষকদের ধরনার ঘটনা শিক্ষা ব্যবস্থায় খারাপ প্রভাব পড়বে বলেই মনে করেন জগদীপ ধনখড়। সোমবার একটি বিবৃতি জারি করে রাজ্যকে কার্যত পরোক্ষে খোঁচা দিলেন ধনখড়।

রাজ্যের সমস্ত শিক্ষকদের যোগ্য সম্মান নিশ্চিত করা উচিত বলেই মন্তব্য করেছেন রাজ্যপাল। প্রসঙ্গত, কদিন আগেই এরিয়ার ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী। কিন্তু এরিয়ার নিয়ে মিথ্যে প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছে, এই অভিযোগে আন্দোলনে নামেন শিক্ষকদের একাংশ। আর এই নিয়ে রাজ্যপালের সঙ্গে বৈঠকও করেন তাঁরা। তারপরেই এই বিবৃতি দেন ধনখড়। 

উল্লেখ্য, রাজ্যে প্রাথমিক ও উচ্চ প্রাথমিকে কর্মরত পার্শ্বশিক্ষকদের একাধিক দাবিদাওয়া নিয়ে আন্দোলন চলছে দীর্ঘদিনই। তবে তা পূরণ না হওয়ায় বিকাশ ভবনের সামনে ধরনার জন্য বিধাননগর পুলিসের অনুমতি চান প্রায় ৫ হাজার শিক্ষক। পুলিস অনুমতি না দেওয়ায় হাইকোর্টে মামলা করেন শিক্ষকরা। রবিবার বিশেষ বেঞ্চ বসিয়ে ধরনার অনুমতি দেয় আদালত।

আরও পড়ুন: অনুমতি দিল আদালত, সোমবার থেকে ধরনায় বসছেন প্রায় ৫ হাজার পার্শ্বশিক্ষক-শিক্ষিকা

বিকাশ ভবন থেকে ১০০ মিটার দূরে ধরনা ও অবস্থানে বসার অনুমতি পান ৩০০ জন পার্শ্ব শিক্ষক-শিক্ষিকা। বাকিদের সেন্ট্রাল পার্কের কাছে বিধান চন্দ্র রায়ের মূর্তির কাছে শান্তিপূর্ণ অবস্থান করতে বলা হয়েছে ৷ ওই শিক্ষকদের প্রতি কোনওরকম বেপরোয়া মনোভাব দেখানো যাবে না বলেই পুলিসকে নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট।