close

News WrapGet Handpicked Stories from our editors directly to your mailbox

থাইল্যান্ডে শুটিংয়ে নিয়ে গিয়ে চরম নির্যাতন কলকাতার তরুণীকে, মুক্তি পিএমও-র সহায়তায়

বেনিয়াপুকুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন ওই তরুণী। অভিযোগ আনা হয়েছে ট্রাভেল এসেন্সির এক প্রবাসী কর্তা ও ২ মহিলার নামে।

Updated: Jul 20, 2019, 08:54 AM IST
থাইল্যান্ডে শুটিংয়ে নিয়ে গিয়ে চরম নির্যাতন কলকাতার তরুণীকে, মুক্তি পিএমও-র সহায়তায়

নিজস্ব প্রতিবেদন: শুটিং করতে বিদেশে গিয়ে চরম নির্যাতনের শিকার কলকাতার তরুণী। এমনকি আটকেও রাখা হয় ওই তরুণীকে। শেষপ্রর্যন্ত প্রধানমন্ত্রীর দফতরের হস্তক্ষেপে শেষপর্যন্ত নিরাপদে দেশে ফিরলেন ওই তরুণী।

আরও পড়ুন-বাংলায় বিজেপির সংগঠনে বড় রদবদল? প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে বৈঠক ঘিরে জল্পনা

মুম্বইয়ের একটি ট্রাভেল এজেন্সির প্রমোশনাল শুটিংয়ে থাইল্যান্ডে গিয়েছিলেন কলকাতার বেনিয়াপুরুরের এক তরুণী(২৩)। কিন্তু সেখানে গিয়ে অন্য মূর্তি ধরেন পরিচালক ও অন্যান্য কর্মীরা।

তরুণীর অভিযোগ, আটকে রেখে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করা হয়েছে তাঁকে। সংবাদমাধ্যমে দেহের বিভিন্ন জায়গায় আঘাতের দাগও দেখান তিনি। শুধু তাই নয় শুটিং থেকে চলে আসতে চাইলে তাঁর পরিবারের কাছ থেকে ২ লাখ চাকা ক্ষতিপূরণেরও দাবি করে পরিচালক ও অন্যান্যরা। তা না দিলে তাকে ছাড়া হবে না বলেও হুমকি দেওয়া হয়।

আরও পড়ুন-বন্ধুদের সঙ্গে স্নান করতে নেমে গঙ্গায় তলিয়ে গেল টালিগঞ্জের কিশোর

এদিকে ঘটনার খবর পেয়েই প্রধানমন্ত্রীর দফতরের সঙ্গে যোগাযোগ করেন পরিবারের লোকজন। তার পরেই সক্রিয় হয়ে ওঠে থাইল্যান্ডে ভারতীয় দূতাবাস। সেখানকার আধিকারিকদের সহায়তায় দেশে ফেরেন ওই তরুণী।

শুক্রবার রাতেই বেনিয়াপুকুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন ওই তরুণী। অভিযোগ আনা হয়েছে ট্রাভেল এসেন্সির এক প্রবাসী কর্তা ও ২ মহিলার নামে।