বিধানসভার অধিবেশন কক্ষে BJP বিধায়কদের পাশেই বরাদ্দ Mukul-র আসন, বসলেনও সেখানে

প্রথমবার বিধায়ক হয়েছেন মুকুল রায় (Mukul Roy)। জিতেছেন বিজেপির টিকিটে কৃষ্ণনগর উত্তর আসনে। 

Updated By: Jul 2, 2021, 10:05 PM IST
বিধানসভার অধিবেশন কক্ষে BJP বিধায়কদের পাশেই বরাদ্দ Mukul-র আসন, বসলেনও সেখানে

নিজস্ব প্রতিবেদন: খাতায় কলমে তিনি এখনও বিজেপি বিধায়ক। বিধানসভা অধিবেশনের প্রথম দিন বসলেন গেরুয়া শিবিরের বিধায়কদের পাশেই। তাঁর এক পাশে মিহির গোস্বামী। অন্য পাশে মনোজ টিগ্গা। মুকুলের (Mukul Roy) জন্য ওই আসনই বরাদ্দ করা হয়েছিল। বিধানসভা কক্ষে এ দিন তাঁর সঙ্গে আলাদা করে কথা বলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)।            

প্রথমবার বিধায়ক হয়েছেন মুকুল রায় (Mukul Roy)। জিতেছেন বিজেপির টিকিটে কৃষ্ণনগর উত্তর আসনে। শপথ নিতে এসেছিলেন বিধানসভায়। সেদিনই তৃণমূলের রাজ্য সভাপতি সুব্রত বক্সির সঙ্গে তাঁর 'সৌজন্য' আলাপ নিয়ে শুরু হয়েছিল জল্পনা। তার পর তো তৃণমূল ভবনে গিয়ে 'ঘরে ফেরা'। সেই ঘটনার পর শুক্রবার বিধানসভার অধিবেশন কক্ষে সদ্য প্রাক্তন দলের সতীর্থদের মুখোমুখি। বসলেনও তাঁদের পাশে। তাঁর আসনের ক্রমিক সংখ্যা ব্লক থ্রি ৪২। বিজেপির মুখ্যসচেতক মনোজ টিগ্গা বসেন ৪০ নম্বরে। ৪১ নম্বরে মিহির গোস্বামী। 
       
অধিবেশন তখনও শুরু হয়নি। বিধানসভায় ঢুকে প্রথা মেনে সই করেন মুকুল রায় (Mukul Roy)। ডান দিকের করিডর ধরে সোজা এগিয়ে যান। ওই করিডরের ডান পাশে মুখ্যমন্ত্রীর ঘর। বাম দিকের ঘরটি তৃণমূলের মুখ্য সচেতক নির্মল ঘোষের। নির্মলের ঘরে তাঁকে অপেক্ষা করার পরামর্শ দেওয়া হয়। তবে তা শোনেননি মুকুল। বসেন সচিবের ঘরে। অনেকে মনে করছেন, আগামী দিনে যাতে সমস্যা না হয় সে কারণে এই সিদ্ধান্ত। সচিবের ঘরেই খান চা-বিস্কিট। মুকুলকে দেখে আলিঙ্গন করেন জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক। কথা বলতে এগিয়ে আসেন চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য, নির্মল মাজি-সহ বেশ কয়েকজন পুরনো সতীর্থ। তাঁর স্ত্রীর কুশল সংবাদ জানতে চান। তাঁদের সঙ্গে বিধানসভার অধিবেশন কক্ষে ঢোকেন মুকুল রায় (Mukul Roy)। তবে শাসক শিবিরের আসনে বসেননি। তাঁর জন্য বরাদ্দ হয়েছিল বিরোধী আসন। নির্দিষ্ট আসনেই বসেন কৃষ্ণনগর উত্তরের বিধায়ক।

পিএসি সদস্য হিসেবে মুকুলের মনোনয়ন নিয়ে ইতিমধ্যেই আপত্তি তুলেছে বিজেপি। দলত্যাগ বিরোধী আইনে তাঁর বিধায়ক পদের খারিজের দাবিতে স্পিকারকে চিঠিও দিয়েছে তারা। পিএসি বিতর্কে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) বলেছিলেন,'মনোনয়ন যে কেউ জমা দিতে পারেন। মুকুল রায় (Mukul Roy) তো বিজেপি পার্টির মেম্বার। তাঁকে কালিম্পং থেকে বিনয় তামাংদের পার্টি সমর্থন দিয়েছে। আমরাও দেব।'

আরও পড়ুন- ভবানীপুর-সহ ৭ কেন্দ্রে উপনির্বাচন নির্ধারিত সময়েই, ইঙ্গিত নির্বাচন কমিশনের

 (Zee 24 Ghanta App দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App)