West Bengal Election 2021: ধর্মের ভিত্তিতে ভোটপ্রচার, ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে Mamata-র ব্যাখ্যা চাইল কমিশন

বিজেপির (BJP) অভিযোগের প্রেক্ষিতে মমতাকে নোটিস পাঠাল কমিশন (Election Commission)।

Updated By: Apr 7, 2021, 09:29 PM IST
West Bengal Election 2021: ধর্মের ভিত্তিতে ভোটপ্রচার, ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে Mamata-র ব্যাখ্যা চাইল কমিশন

নিজস্ব প্রতিবেদন: সংখ্যালঘু ভোট ভাগ না করার আর্জি করেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। নির্বাচন কমিশনে তৃণমূল নেত্রীর বিরুদ্ধে ধর্মের ভিত্তিতে ভোটপ্রচারের অভিযোগ করে বিজেপি। সেই অভিযোগের প্রেক্ষিতে মমতাকে (Mamata Banerjee) নোটিস পাঠাল কমিশন (Election Commission)। আগামী ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে ওই বক্তব্যের ব্যাখ্যা দিতে হবে মমতাকে। 

নির্বাচন কমিশন (Election Commission) নোটিসে জানিয়েছে, ৩ এপ্রিল ভাষণটি খতিয়ে দেখা হয়েছে। জনপ্রতিনিধি আইনের ১২৩ (৩), ৩ (এ) ও (৪) ধারা এবং নির্বাচনী আচরণবিধি ভেঙেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নোটিসপ্রাপ্তির আগামী ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে তাঁকে ব্যাখ্যা দেওয়ার সুযোগ দেওয়া হচ্ছে। ওই সময়ের মধ্যে জবাব না আসলে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেবে কমিশন।

কী বলেছিলেন মমতা?

গত ৩ এপ্রিল তারকেশ্বরের জনসভায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) বার্তা ছিলেন,'সংখ্যালঘু ভাই-বোনেদের কাছে হাতজোড় করে একটা কথা বলব, ওই শয়তান ছেলেটা বিজেপির টাকা নিয়ে বেরিয়েছে। ওর কথা শুনে সংখ্যালঘু ভোট ভাগ করবেন না। ও সাম্প্রদায়িক কথা বলে। বিজেপি টাকা নিয়ে বেরিয়েছে যাতে সংখ্যালঘু ভোট ভাগ হয়ে যায়। মনে রাখবেন, বিজেপি আসলে দুর্ভোগ আপনাদের বেশি, এটা মাথায় রাখবেন।'

সরব হয়েছেন মোদী

মমতার ওই বক্তব্যের কথা মনে করিয়ে গতকাল কোচবিহারের জনসভা থেকে আক্রমণ করেছিলেন নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi)। বলেছেন, 'আদরণীয় দিদি ও  দিদি...আপনি বললেন, সব মুসলিম এক হয়ে যাও। ভোট ভাগতে করতে দিও না। দিদি এটা আপনাকে বলতে হচ্ছে কারণ আপনিও বুঝে গিয়েছেন মুসলিম ভোটব্যাঙ্কও আর আপনার হাতে নেই। মুসলিমরাও দূরে চলে গিয়েছে। তাই সর্বসমক্ষে আপনাকে বলতে হচ্ছে। এতে স্পষ্ট, আপনি ভোটে হারছেন।' 

আরও পড়ুন- West Bengal Election 2021: কোচবিহারে আক্রান্ত Dilip, গাড়ি ভাঙচুর ও বোমাবাজির অভিযোগ