জাতীয় কার্যকারী সংসদ থেকে বাবা-কাকাকে তাড়ালেন টিপু

Updated By: Oct 18, 2017, 09:13 AM IST
জাতীয় কার্যকারী সংসদ থেকে বাবা-কাকাকে তাড়ালেন টিপু

নিজস্ব প্রতিবেদন: দলের শীর্ষ পদ দখল করেছিলেন আগেই। এবার সমাজবাদী পার্টির প্রতিষ্ঠাতা তথা 'বাবা' মুলায়ম সিং যাদব এবং 'কাকা' শিবপাল যাদবকে দলের জাতীয় কার্যাকারী সংসদ থেকে বাদ দিলেন অখিলেশ সিং যাদব। কেন্দ্রীয় নির্বাচন কমিশনে জমা দেওয়া ৫৫ জন পদাধিকারীর নামের যে তালিকা সমাজবাদী পার্টির তরফে জমা দেওয়া হয়েছে তাতে কোথাও এই দু'জনের নাম নেই বলে জানা গিয়েছে।

দলের শীর্ষ পদে ছেলে টিপু নির্বাচিত হওয়ায় তিনি খুশি বলে জানালেও কংগ্রেসের সঙ্গে হাত ধরাধরি করে চলার রাজনৈতিক লাইনে সহমত নন বলে জানিয়ে দিয়েছেন সপা-র 'নেতাজি'। দলের যে অভ্যন্তরীণ নির্বাচনের মাধ্যমে অখিলেশ সর্বোচ্চ পদে বসেছিলেন তাতে উপস্থিত থাকেননি মুলায়ম সিং যাদব বা শিবপাল।

প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালের উত্তরপ্রদেশ বিধানসভা নির্বাচনে দাগি ও দুর্বৃত্তদের টিকিট দেওয়ার বিরোধিতাকে কেন্দ্র করে শিবপালের সঙ্গে অখিলেশের দ্বন্দ্ব শুরু হয়। প্রাথমিক পর্বে মুলায়ম নিজের অবস্থানে সবসময় সুদৃঢ় না থাকলেও মোটের উপর ভাই শিবপালের পক্ষই নিয়েছিলেন। বিধানসভা ভোটে সপা-কংগ্রেসের আসন রফা নিয়েও ঘোর আপত্তি তোলেন মুলায়ম। কিন্তু এই দুই প্রশ্নেই অনড় থাকেন অখিলেশ। গোটা পর্বে অখিলেশের পাশে থাকে মুলায়মের তুতো ভাই তথা রাজ্যসভার সাংসদ রামগোপাল যাদব।

যদু বংশের এই মুষল পর্ব নাটকীয় মোড় নেয় যখন মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে নিজের মন্ত্রিসভা থেকে শিবপালকে বহিষ্কার করেন অখিলেশ। এরপরই অখিলেশ ও রামগোপালকে দল থেকে বিতাড়িত করার সিদ্ধান্ত নেন মুলায়ম। পরে অবশ্য সেই সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করে ছেলেকে দলে ফেরান তিনি। এসবের মধ্যেই উত্তর প্রদেশ বিধানসভা ভোটে শোচনীয় পরাজয় ঘটে সমাজবাদী পার্টি ও কংগ্রেস জোটের। তবে গোটা পর্বে দলীয় সংগঠনে (বিধায়কদের সমর্থনের বিচারেও) নিজের প্রতিপত্তি যে প্রশ্নাতীত তা প্রমাণ করে দিয়েছিলেন অখিলেশ।

সমাজবাদী পার্টির বদলে যাওয়া এই ক্ষমতার বিন্যাসের চরম স্বীকৃতি মেলে সাম্প্রতিক অভ্যন্তরীণ নির্বাচনে দলীয় সুপ্রিমোর পদে তরুণ অখিলেশের অভিষেকের মাধ্যমে। তবে, এবার মুলায়ম ও শিবপালকে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ জাতীয় কার্যাকারী সংসদ থেকে বাদ দিয়ে কার্যত তিনিই যে দলে শেষ কথা তা স্পষ্ট করে দিলেন অখিলেশ সিং যাদব।