টানা ৭ ঘণ্টা তল্লাশি; বারামুলায় খোঁজ মিলল একাধিক জঙ্গি আস্তানার, উদ্ধার বিপুল অস্ত্র

এলাকায় বড়সড় কোনও নাশকতার ছক কষেছিল জঙ্গিরা। সীমান্তের ওপার থেকে আসা অস্ত্র-গুলি পরে সরিয়ে নেওয়ার পরিকল্পনা করেছিল তারা।

Edited By: সিকান্দর আবু জ়াফর | Updated By: Sep 1, 2020, 04:02 PM IST
টানা ৭ ঘণ্টা তল্লাশি; বারামুলায় খোঁজ মিলল একাধিক জঙ্গি আস্তানার, উদ্ধার বিপুল অস্ত্র
ছবি-টুইটার

নিজস্ব প্রতিবেদন: কাশ্মীরের বারামুলার সীমান্তবর্তি এলাকায় হানা দিয়ে একাধিক জঙ্গি আস্তানা খুঁজে পেল সেনাবাহিনীর চিনার কর্প। 

নিয়ন্ত্রণরেখার নিকটবর্তি রামপুরের একটি গ্রামে ওইসব জঙ্গি আস্তানার খোঁজ পায় সেনাবাহিনী। সেখানে থেকে উদ্ধার হয়েছে বিপুল পরিমাণ অস্ত্র-গোলাগুলি।

আরও পড়ুন-ঋণী অনেকেই, নত শিরে ভারতরত্ন প্রণবকে শেষ শ্রদ্ধা রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রী-মনমোহনের

সেনাবাহিনীর কাছে খবর ছিল নিয়ন্ত্রণরেখার কাছাকাছি কিছু সন্দেহজনক লোকজন ঘোরাফেরা করছে।  জঙ্গলঘেরা জায়গার কথা মাথায় রেখে তল্লাশিতে নামে সেনা। তার পরেই উদ্ধার হয় ওই বিপুল অস্ত্র।

টানা সাত ঘণ্টা ধরে তল্লাশি চালিয়ে উদ্ধার হয়েছে ৫টি একে ৪৭ রাইফেল, ৬টি ম্যাগাজিন, একটি বাক্সে ভরা ১২৫৪ রাউন্ট একে ৪৭ রাইফেলের গুলি, ৬টি পিস্তল, ৯টি  ম্যাগাজিন, ২১টি গ্রেনেড ও ২টি রেডিয়ো সেট।

আরও পড়ুন-কাফিল খানকে জেলে রাখা বেআইনি, অবিলম্বে মুক্তির নির্দেশ এলাহাবাদ হাইকোর্টের

কেন ওই বিপুল অস্ত্র এক জায়গায় জমা করেছিল জঙ্গিরা? সেনাবাহিনীর ধারণা, এলাকায় বড়সড় কোনও নাশকতার ছক কষেছিল জঙ্গিরা। সীমান্তের ওপার থেকে আসা অস্ত্র-গুলি পরে সরিয়ে নেওয়ার পরিকল্পনা করেছিল তারা।

২০২০ সালেও এভাবেই বারামুলায় কাশ্মীরের জঙ্গি সংগঠনগুলির হাতে অস্ত্র পৌঁছে দেওয়ার চেষ্টা হয়েছিল। সেবার তল্লাশিতে উদ্ধার হয় ৫টি পিস্তল, বিপুল গুলি, ২৪টি গ্রেনেড-সহ অন্যান্য অস্ত্র।