তেলেঙ্গানায় ভরাডুবির পর টিআরএসের বিরুদ্ধে ইভিএম কারচুপির অভিযোগ কংগ্রেসের

১১৯ আসনের তেলেঙ্গানায় ৮৪টি আসনে এগিয়ে টিআরএস। 

Updated By: Dec 11, 2018, 02:46 PM IST
তেলেঙ্গানায় ভরাডুবির পর টিআরএসের বিরুদ্ধে ইভিএম কারচুপির অভিযোগ কংগ্রেসের

নিজস্ব প্রতিবেদন: তেলেঙ্গানায় কংগ্রেসকে ধুয়েমুছে দিয়েছে টিআরএস। আর তারপরই টিআরএসের বিরুদ্ধে ইভিএম কারচুপির অভিযোগ তুলল রাহুল গান্ধীর দল। তেলেঙ্গানা প্রদেশ কংগ্রেস কমিটির উত্তম কুমার রেড্ডির অভিযোগ, ফলাফল নিয়ে সংশয় রয়েছে তাঁর। ইভিএমে কারচুপি হয়ে থাকতে পারে। 

শুধু চাই নয়, ইভিএমে কারচুপির অভিযোগ করে তেলেঙ্গানার মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিকের কাছে চিঠিও দিয়েছে কংগ্রেস। সেখানে তারা দাবি করেছে, ইভিএমের সঙ্গে ভিভিপ্যাট মিলিয়ে দেখা হোক। একশো শতাংশ ভিভিপ্যাটের সঙ্গে মিলিয়ে দেখার আবেদন করেছে কংগ্রেস। 

তেলেঙ্গানায় তেলগু দেশম পার্টি, তেলেঙ্গানা জন সমিতি ও সিপিআইয়ের সঙ্গে জোট করেছিল কংগ্রেস। তা সত্ত্বেও কেসিআরের জনপ্রিয়তায় আঘাত করতে পারেনি কংগ্রেস। বিপুল সংখ্যক আসন পেয়ে প্রত্যাবর্তন করতে চলেছেন কেসিআর। বলে রাখি, ১১৯ আসনের তেলেঙ্গানায় ৮৪টি আসনে এগিয়ে টিআরএস। ২২টি আসনে এগিয়ে কংগ্রেস। বিজেপি এগিয়ে ৩ আসনে।.

কংগ্রেসের অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছে টিআরএস। দলের সাংসদ তথা কেসিআর কন্যা কে কবিতা বলেন, ''পরাজিত দল সবসময়ই ইভিএম কারচুপির অভিযোগ তোলে। এটা সর্বৈব মিথ্যা। গতকাল নির্বাচন কমিশনও জানিয়ে দিয়েছিল, ইভিএম কারচুপি সম্ভব নয়। টিআরএসকে জিতিয়েছেন সাধারণ মানুষ''।  

ছত্তীসগঢ়ে সরকার গঠন করতে চলেছে কংগ্রেস। তবে মধ্যপ্রদেশ ও রাজস্থানে চলছে জোর টক্কর। দুটি রাজ্যেই ফ্যাক্টর হতে পারেন নির্দল প্রার্থীরা। এই তিন রাজ্যে অবশ্য ইভিএম কারচুপির অভিযোগ করেনি কংগ্রেস। 

আরও পড়ুন- মহারাষ্ট্রের ধুলে পুরভোটে ধুলো থেকে ক্ষমতায় বিজেপি