তিরিশ বছর পর...এখনও নিশ্বাসে কষ্ট ভোপালের

Updated By: Dec 2, 2014, 11:03 AM IST
তিরিশ বছর পর...এখনও নিশ্বাসে কষ্ট ভোপালের

তিরিশ বছর আগের এক দুর্ঘটনা। আজও তার ক্ষত বইতে হচ্ছে ভোপালকে। সেদিনও ছিল দোসরা ডিসেম্বর। গ্যাস দুর্ঘটনা এক লহমায় কেড়ে নিয়েছিল হাজার হাজার প্রাণ। আজও সেখানে কাটেনি মৃত্যুর বিভীষিকা। আজও মাটির তলায় জমে পাহাড় প্রমাণ বিষ। যা ধীরে ধীরে বিষিয়ে তুলছে শহরের জল-মাটিকে।

ভয়ঙ্কর অতীতকে ভোলা বড় শক্ত। ধ্বংসস্তূপের ওপর এখনও জেগে রয়েছে ইউনিয়ন কার্বাইডের বোর্ড। একের পর এক প্রজন্ম দেখেছে, কত মারাত্মক হতে পারে পরিণতি! উনিশশো চুরাশির দোসরা ডিসেম্বর। এখনকার ভেঙে পড়া, জীর্ণদশা এই কারখানা সেদিন বয়ে এনেছিল মৃত্যুর বার্তা। হাজার হাজার টন বিষাক্ত বর্জ্য এখনও জমে কারখানার মাটির নিচে। যা ক্রমেই আরও বিষিয়ে তুলছে ভোপাল শহরকে।
 
সমীক্ষা বলছে, কারখানার আটষট্টি একর এলাকার মধ্যে প্রায় একুশটি জায়গায় এখনও জমে বিষাক্ত বহু রাসায়নিক।  সরানো যায়নি। কারণ দায় নিতে রাজি নয় কেউ! বর্তমানে কারখানাটি ডাও কেমিক্যাল সংস্থার হাতে। তাঁদের দাবি, সাফাইয়ের কাজ শেষ করে গেছে  ইউনিয়ন কার্বাইড। তাদের আর কিছুই করার নেই। শ্বাস নেওয়া আজও আতঙ্কের এই শহরে। জল-মাটি বিষিয়ে উঠছে। একথা জেনেও কি হাত গুটিয়ে বসে থাকবে সবাই? দায় ঝেড়ে ফেলে শেষ রক্ষা হবে তো?