close

News WrapGet Handpicked Stories from our editors directly to your mailbox

নাটকের অবসান, বাড়ি থেকে চিদম্বরমকে গ্রেফতার করল সিবিআই

গ্রেফতারি এড়ানোর সব চেষ্টাই বিফলে।  

Updated: Aug 21, 2019, 10:16 PM IST
নাটকের অবসান, বাড়ি থেকে চিদম্বরমকে গ্রেফতার করল সিবিআই

নিজস্ব প্রতিবেদন: টান টান নাটকের পর পি চিদম্বরমকে গ্রেফতার করল সিবিআই। বিভিন্নভাবে গ্রেফতারি এড়ানোর চেষ্টা করেছেন প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী। কিন্তু শেষ রক্ষা হল না। জোড় বাগে তাঁর বাড়ি থেকে চিদম্বরমকে গ্রেফতার করলেন কেন্দ্রীয় তদন্তকারী আধিকারিকরা। তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয় দিল্লিতে সিবিআই সদর দফতরে।  

 এর আগে সিবিআই-চিদম্বরম লুকোচুরির সাক্ষী থেকেছে গোটা দেশ। গতকাল আচমকা বেপাত্তা হয়ে যান চিদম্বরম। তাঁর বিরুদ্ধে লুকআউট নোটিস জারি করে ইডি-সিবিআই। ২৭ ঘণ্টা পর বুধবার সন্ধেয় কংগ্রেসের সদর দফতরে হাজির হয়ে সাংবাদিক বৈঠক করেন পি চিদম্বরম। নিজেকে নির্দোষ বলে দাবি করেন। তখনই কংগ্রেসের সদর দফতরের উদ্দেশে রওনা দেয় সিবিআই-ইডি। কিন্তু তদন্তকারীরা পৌঁছনোর আগেই দলের দফতর ছাড়েন প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী। জোড়বাগে নিজের বাড়িতে চলে যান। তাঁকে পিছু ধাওয়া করেন সিবিআই কর্তারা। দরজা বন্ধ থাকায় বাড়ির পাঁচিল টপকে বাড়িতে ঢুকে পড়েন তাঁরা। গ্রেফতারি এড়াতে সবরকম চেষ্টাই করেছিলেন চিদম্বরম। ২৪ ঘণ্টা ধরে তাঁর খোঁজ মিলছিল না। এমনকি বাড়ির বাইরে কংগ্রেস সমর্থকরাও জড়ো হয়ে সিবিআইয়ের উপরে চাপ সৃষ্টির চেষ্টা করেন। কিন্তু কোনও চেষ্টাই সফল হয়নি। দুঁদে আইনজীবীর সামনে ধরা দেওয়া ছাড়া আর কোনও পথ খোলা ছিল না বলে মত ওয়াকিবহাল মহলের একাংশের।                 

 গ্রেফতারির ঘণ্টাখানেক আগে দিল্লিতে কংগ্রেসের সদর দফতরে প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী বলেন,'আইএনএক্স মিডিয়া মামলায় আমি অভিযুক্ত নই, আমার পরিবারের কেউ জড়িত নয়। আদালতে আমার নামে কোনও চার্জশিট পেশ করেনি সিবিআই বা ইডি।'  কিন্তু সাংবাদিকদের কোনও প্রশ্নের জবাব দেননি প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী। তাঁকে পাকড়াও করতে কংগ্রেসের সদর দফতরের উদ্দেশে রওনা দেয় সিবিআই-ইডি।  

গতকাল থেকে বেপাত্তা ছিলেন চিদম্বরম। এদিন রক্ষাকবচ পেতে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হন চিদম্বরমের আইনজীবী কপিল সিব্বল। কিন্তু প্রধান বিচাপতি অযোধ্যা মামলায় ব্যস্ত থাকায় মামলা আর ওঠেনি। ফলে চিদম্বরমের গ্রেফতারি অনেকটাই নিশ্চিত হয়ে গিয়েছিল।
চিদম্বরমের ছেলে কার্তি দাবি করেন, রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে তাঁর বাবাকে অপদস্থ করা হচ্ছে। ইডি যতবার তাঁর বাবাকে ডেকেছে, তিনি হাজিরা দিয়েছেন।    

আরও পড়ুন- প্রধানমন্ত্রীর ডাকে সাড়া, প্লাস্টিক ব্যবহারে বড়সড় সিদ্ধান্ত নিল ভারতীয় রেল