‘গোষ্ঠী সংক্রমণ শুরু হয়নি, জুলাই পর্যন্ত দিল্লিতে করোনা আক্রান্ত হতে পারেন ৫.৫ লাখ মানুষ’

দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অসুস্থ। তাঁর গলা ব্যথা রয়েছে, জ্বরও রয়েছে সামান্য। রবিবার বিকেল থেকেই তিনি সেলফ আইসোলেশনে রয়েছেন। আজ তাঁর করোনা টেস্ট হয়েছে

Updated By: Jun 9, 2020, 02:47 PM IST
‘গোষ্ঠী সংক্রমণ শুরু হয়নি, জুলাই পর্যন্ত দিল্লিতে করোনা আক্রান্ত হতে পারেন ৫.৫ লাখ মানুষ’

নিজস্ব প্রতিবেদন: দেশের যেকটি রাজ্যে বেশি করোনা আক্রান্ত তার মধ্যে রয়েছে দিল্লি।

রাজ্যে এখনও করোনা আক্রান্ত ২৭,৬৫৪ জন। এর মধ্যে সক্রিয় আক্রান্ত ১৬.২২৯ জন। মৃত্যু হয়েছে ৭৬১ জনের। এর মধ্যেই আতঙ্কের কথা শোনালেন রাজ্যের উপ মুখ্যমন্ত্রী মণীশ সিসোদিয়া।

আরও পড়ুন-১৫ দিনের মধ্যে শ্রমিকদের ঘরে ফেরান, কেন্দ্র-রাজ্য সরকারগুলিকে নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের

সিসোদিয়া মঙ্গলবার বলেন, দিল্লিতে এখনও গোষ্ঠী সংক্রমণ শুরু হয়নি। তবে ৩১ জুলাই নাগাদ রাজধানী-সহ গোটা রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা গিয়ে দাঁড়াবে সাড়ে পাঁচ লাখে। জুলাইয়ের শেষ দিকেই দিল্লির হাসপাতালগুলিতে ৮০,০০০ বেডের প্রয়োজন হবে।

দিল্লি বিপর্যয় মোকাবিলা সংস্থার প্রধান দিল্লির উপ-রাজ্যপাল অনিল বাইজাল। দিল্লির পরিস্থিতি নিয়ে তাঁর সঙ্গে আজ একটি বৈঠক করেন সিসোদিয়া। গতকাল বাইজালের কঠোর সমালোচনা করেন সিসেদিয়া। কারণ দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালের ঘোষণা নাকচ করে দিয়ে বাইজাল জানিয়ে দেন, দিল্লিতে সব রাজ্যের মানুষের চিকিত্সা হবে। এনিয়ে গতকাল সিসোদিয়া বলেন, বিজেপির চাপে পড়েই ওই ঘোষণা করেছেন দিল্লির উপ-রাজ্যপাল।

আরও পড়ুন-এনিয়ে পরপর তিনদিন, লকডাউন শেষ হতেই চড়চড়িয়ে বাড়ছে পেট্রোল-ডিজেলের দাম

এদিকে, দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অসুস্থ। তাঁর গলা ব্যথা রয়েছে, জ্বরও রয়েছে সামান্য। রবিবার বিকেল থেকেই তিনি সেলফ আইসোলেশনে রয়েছেন। আজ তাঁর করোনা টেস্ট হয়েছে। ফলে উদ্বিগ্ন দল। জুনের শেষ দিল্লিতে ১৫,০০০ করোনা বেডের প্রয়োজন হবে তাই রাজ্যের সরকারি হাসপাতালগুলিতে অন্যান্য রাজ্যের মানুষদের চিকিত্সা হবে না বলে ঘোষণা করেছিলেন কেজরি। শেষপর্যন্ত তা ধোপে টেকেনি।