close

News WrapGet Handpicked Stories from our editors directly to your mailbox

সুখবর, মোদী সরকারের সিদ্ধান্তে আরও সস্তা ইলেকট্রনিক গাড়ি

পরিবেশ ও পেট্রোল-ডিজেলের ঊর্ধ্বমুখী দামের কথা মাথায় রেখে দেশজুড়ে ই-যানের ব্যবহারে জোর দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার।

Updated: Jun 19, 2019, 09:45 PM IST
সুখবর, মোদী সরকারের সিদ্ধান্তে আরও সস্তা ইলেকট্রনিক গাড়ি

নিজস্ব প্রতিবেদন: ইলেকট্রিক গাড়ি কেনার কথা ভাবছেন? তাহলে আপনার জন্য সুখবর দিল মোদী সরকার। ই-যানের বিক্রিবাটায় উত্সাহ দিতে বড় সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করল কেন্দ্র। ই-যান বা ইলেকট্রনিক গাড়ি কিনলে আর দিতে হবে না রেজিস্ট্রেশন ফি। এর ফলে সাশ্রয় হবে ক্রেতাদের।  

কেন্দ্রীয় মোটরযান আইনে (১৯৮৯) সংশোধনী খসড়া পেশ করেছে কেন্দ্রীয় পরিবহন ও সড়ক মন্ত্রক। ওই খসড়ায় বলা হয়েছে, ই-যানে ক্রয়ে রেজিস্ট্রেশন ফি ছাড়  দেওয়া হয়েছে। রেজিস্ট্রেশন পুনর্নবীকরণেও লাগবে না ফি। দুই চাকা, তিন চাকা বা চার চাকা- সব ধরনের ই-যানের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হবে কেন্দ্রের নয়া সিদ্ধান্ত। 
         

পরিবেশ ও পেট্রোল-ডিজেলের ঊর্ধ্বমুখী দামের কথা মাথায় রেখে দেশজুড়ে ই-যানের ব্যবহারে জোর দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। ২০৩০ সালের মধ্যে গোটা দেশে ইলেকট্রিক গাড়ি চালানোর পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। ইতিমধ্যেই রাস্তায় নেমে পড়েছে ই-যান। কলকাতাতেও চলছে ই-বাস। ২০২৩ সালের মধ্যে দেশে তিন চাকার ও ২০২৫ সালের মধ্যে দু-চাকার ইলেকট্রিক গাড়ি চালানোর লক্ষ্যমাত্রা নেওয়া হয়েছে। সেই লক্ষ্যেই অগ্রসর হতে ই-যানে রেজিস্ট্রেশন ফি মকুব করার সিদ্ধান্ত নিল সরকার। তবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বড় শহরগুলিতেও ই-যানে চার্জ দেওয়ার পয়েন্টের সংখ্যা হাতেগোনা। প্রতিটি পেট্রোল পাম্পে চার্জিং পরিষেবা দেওয়া না গেলে গাড়ি বিক্রি বাড়ানো সম্ভব নয়।         

                              
অতিসম্প্রতি তিন চাকার ইলেকট্রিক গাড়িতে নম্বর প্লেট বাধ্যতামূলক করার পরামর্শ দিয়েছিল প্রধানমন্ত্রীর দফতর। সেই মতো কেন্দ্রীয় পরিবহণ ও সড়ক মন্ত্রক নির্দেশিকা জারি করে জানায়, প্রতিটি তিন চালাক ই-যানে সবুজ ও সাদা রঙের নম্বর প্লেট আবশ্যক। 

আরও পড়ুন- অনলাইন লেনদেনে ভার্চুয়াল মুদ্রার পরিষেবা চালু করতে চলেছে ফেসবুক