কাদায় বসে শাখ বাজিয়ে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর কায়দা শেখালেন বিজেপি সাংসদ

কেন্দ্রীয় সরকার, আইএমসিআর ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তরফে বারবার বলা হচ্ছে, অতিমারির সময় অযৌক্তিক কোনও পরামর্শ মেনে চললে বিপদ বাড়তে পারে। সেখানে নেতারা কীভাবে এসব মনগড়া পরামর্শ দিচ্ছেন! প্রশ্ন উঠছে।

Updated By: Aug 15, 2020, 10:49 AM IST
কাদায় বসে শাখ বাজিয়ে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর কায়দা শেখালেন বিজেপি সাংসদ

নিজস্ব প্রতিবেদন- ভাবিজি পাপড় শরীরে করোনার অ্যান্টিবডি তৈরিতে সাহায্য করবে। একটি বিশেষ সংস্থার পাপডে়র বিজ্ঞাপন দিয়ে এমনই দাবি করেছিলেন বিজেপি সাংসদ অর্জুন মেঘোয়াল। তবে ভাবিজি পাপড় এবার অতীত। বিজেপির আরেক সাংসদ শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর নতুন কায়দা শেখালেন। আর সেই কৌশল শেখাতে গিয়ে তিনি নিজে কাদায় বসে শাখ বাজালেন। তাঁর সেই কাণ্ডের ভিডিয়ো ছড়িয়ে পড়ল আগুনের মতো। কেউ হাসলেন। কেউ বললেন, এই অতিমারির সময় নেতা-মন্ত্রীদের এমন মনগড়া পরামর্শের জন্য শাস্তি হওয়া উচিত। কেন্দ্রীয় সরকার, আইএমসিআর ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তরফে বারবার বলা হচ্ছে, অতিমারির সময় অযৌক্তিক কোনও পরামর্শ মেনে চললে বিপদ বাড়তে পারে। সেখানে নেতারা কীভাবে এসব মনগড়া পরামর্শ দিচ্ছেন! প্রশ্ন উঠছে।

রাজস্থানের সাওয়াই মধুপুরের বিজেপি সাংসদ সুখবীর সিং জাউনাপুরিয়া একটি ভিডিয়ো আপলোড করেছেন ফেসবুকে। সেখানে দেখা যাচ্ছে, তিনি সারা শরীরের কাদা মেখে শাখ বাজাচ্ছেন। সুখবীর সিং বলছেন, ''এই সময় কিডনি ও ফুসফুসের কার্যকারিতা যাচাই করা দরকার। আর তাই শাখ বাজাতে হবে।'' তিনি আরও বলেন, ''করোনার বিরুদ্ধে লড়তে হলে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে হবে। আর ওষুধ খেয়ে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়বে না। শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে হবে প্রাকৃতিক উপায়ে। বৃষ্টির মধ্যে বেরিয়ে পড়তে হবে। কাদায় বসে পড়তে হবে। সাইকেল চালাতে হবে। শাখ বাজাতে হবে। দেশী খাবার খেতে হবে। তা হলেই আর ওষুধ খেতে হবে না।''

যে সব মানুষ এগুলি করতে ভয় পান তাঁদের তিনি সাওয়াই মধুপুরে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। সুখবীর সিং বলেছেন, ''আমি নিজে তাঁদের সঙ্গে কাদায় নেমে পড়ব। বৃষ্টিতে ভিজব। গ্রামের মানুষের শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা প্রাকৃতিকভাবে তৈরি হয়। গ্রামের মানুষের শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার প্রশংসা করেছেন খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। টাটকা ফল, সবজি খেতে হবে। এগুলো করতে পারলে করোনা আর ধারে কাছে ঘেঁষতে পারবে না।''