ফেসবুকে 'নিশা জিন্দল', বাস্তবে 'রবি', সাম্প্রদায়িকতা ছড়ানোর অভিযোগে গ্রেফতার যুবক

জানা যায় প্রায় ১১ বছর ধরে ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের একই সেমেস্টারে আটকে রয়েছেন রবি।

Updated By: Apr 20, 2020, 05:33 PM IST
ফেসবুকে 'নিশা জিন্দল', বাস্তবে 'রবি', সাম্প্রদায়িকতা ছড়ানোর অভিযোগে গ্রেফতার যুবক

নিজস্ব প্রতিবেদন : ১১ বার পরীক্ষা দিয়েছেন। কিন্তু এখন‌ও ইঞ্জিনিয়ারিং পাশ করতে পারেননি রবি। সময় কাটাতে তাই মনের খেয়ালে একজন মহিলার নাম ও ছবি দিয়ে ফেক অ্যাকাউন্ট বানিয়েছিলেন ফেসবুকে। আকর্ষণীয় মহিলার ছবি ও নিয়মিত পোষ্টের মাধ্যমে প্রায় ১০ হাজার ফলোয়ার ছিল তাঁর অ্যাকাউন্টে। তবে গত কয়েকদিন পরপর কিছু বিতর্কিত পোস্টের পরেই তাঁর অ্যাকাউন্টটি পুলিসের নজরে আসে। সাম্প্রদায়িক ঘৃণা ছড়ানোর অভিযোগে পুলিশ ওই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে।

সাধারণত যাঁরা সোশ্যাল মিডিয়ায় একটু অভ্যস্ত তাঁরা দেখেই বুঝতে পারবেন যে অ্যাকাউন্টটি ফেক। ঠিক সেই ভাবেই পুলিশেরও বুঝতে অসুবিধা হয়নি। সাইবার ক্রাইম ডিপার্টমেন্টের সঙ্গে হাত মিলিয়ে অ্যাকাউন্টটি যে স্থান থেকে চালানো হচ্ছে তা খুঁজে বের করে পুলিস। দেখা যায় রবি নামে এক ব্যক্তিই নিশা জিন্দল! ছত্রিশগড়ের রায়পুর থেকে পুলিশ রবি নামের ওই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেন। জানা যায় প্রায় ১১ বছর ধরে ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের একই সেমেস্টারে আটকে রয়েছেন রবি।

এর পরেই অবশ্য সবচেয়ে মজাদার ঘটনাটি ঘটে। রবিকে দিয়েই তাঁর ফেক অ্যাকাউন্টের নিজের সেলফি পোস্ট করান পুলিশকর্তারা। সঙ্গে ক্যাপশনে পুলিশকর্মীদের নির্দেশ অনুযায়ী রবি লেখেন "আমি পুলিস হেফাজতে আছি, আমিই নিশা জিন্দল।"

সোশ্যাল মিডিয়ায় মুহূর্তে ভাইরাল হয়ে যায় সেই পোস্ট। তবে শুধু ফেসবুক নয়, অন্যান্য প্ল্যাটফর্মেও একইভাবে ফেক অ্যাকাউন্ট চালাতেন রবি। আর সেখানেও বেশ ভালই ফলোয়ার ছিল তাঁর। গোটা ঘটনাটি রি-টুইট করেন ছত্রিশগড়ের মুখ্যমন্ত্রী ভূপেশ বাঘেল। প্রশাসনের প্রশংসা করে তিনি লেখেন, "যারা জোচ্চুরি করে তাদেরকে কোনমতেই ছাড়া হবে না।"