বিরোধীদের হার স্বীকার করে নেওয়া উচিত, মত রবিশঙ্কর প্রসাদের

তাঁর বক্তব্য, দেশের মানুষ নরেন্দ্র মোদীকেই দ্বিতীয়বার প্রধানমন্ত্রী হিসেবে চাইছেন। সেই কারণেই বিরোধীদের কাছে ইভিএম এখন বিশ্বাসযোগ্যতা হারিয়ে ফেলেছে।

Updated By: May 22, 2019, 05:10 PM IST
বিরোধীদের হার স্বীকার করে নেওয়া উচিত, মত রবিশঙ্কর প্রসাদের

নিজস্ব প্রতিবেদন: ইভিএম বিতর্কে বিরোধীদের একহাত নিলেন কেন্দ্রীয় আইনমন্ত্রী তথা বিজেপি নেতা রবিশঙ্কর প্রসাদ। ইভিএম হ্যাক করার যে অভিযোগ বিরোধীরা তুলেছে, তারই পাল্টা সমালোচনায় সরব হয়েছেন পাটনা সাহিবের বিজেপি প্রার্থী।

বিরোধীদের নিয়ে তাঁর মত, “নরেন্দ্র মোদী যদি দ্বিতীয়বার প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন, তাহলে বিরোধীদের হার স্বীকার করে নেওয়া উচিত।” তাঁর কথায়, বিরোধীরা যখন ভোটে জেতে তখন ইভিএম নিয়ে কোনও প্রশ্ন ওঠে না। কিন্তু বিজেপি জিতলে তখন ইভিএমে কারচুপির অভিযোগ ওঠে।

আরও পড়ুন: Zomato-র ধামাকা! দেশের হবু প্রধানমন্ত্রীর নাম বলতে পারলেই মিলবে বড়সড় ছাড়

তাঁর বক্তব্য, দেশের মানুষ নরেন্দ্র মোদীকেই দ্বিতীয়বার প্রধানমন্ত্রী হিসেবে চাইছেন। তাই ফের এনডিএ সরকারের জয়ের আশা বাড়তে শুরু করেছে। সেই কারণেই বিরোধীদের কাছে ইভিএম এখন বিশ্বাসযোগ্যতা হারিয়ে ফেলেছে।

প্রসঙ্গত, ১৯ মে লোকসভা নির্বাচন শেষ হতেই একাধিক সংবাদমাধ্যম সামনে এনেছে এক্সিট পোলের ফলাফল। তাতে মোদী সরকারের ক্ষমতায় ফেরার দিকেই ইঙ্গিত দেওয়া হয়েছে। তার পর ইভিএম নিয়ে আরও বেশি সরব হতে দেখা গিয়েছে বিরোধীদের। নির্বাচন কমিশনের কাছে দরবার করতেও দেখা গিয়েছে বিরোধী নেতাদের।

আরও পড়ুন: জোর ধাক্কা বিরোধীদের, ভিভিপ্যাট নয়, প্রথমে গণনা হবে EVM, জানিয়ে দিল কমিশন

আর সেই প্রসঙ্গেরই উত্তর দিয়েছেন রবিশঙ্কর প্রসাদ। তবে তিনি মনে করেন, চতুর্থ দফা ভোটের পরই বিরোধীরা হারের আভাস পেয়েছিল। নরেন্দ্র মোদী যে আবার প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন, তখন থেকেই তা স্পষ্ট হতে শুরু করে। তাই তখন থেকেই ইভিএম নিয়ে অজুহাত দেখাতে শুরু করে বিরোধীরা।

রবিশঙ্কর প্রসাদের মতো একই কথা বলেছেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী রাজ্যবর্ধন সিং রাঠোর। তিনিও বলেছেন, বিজেপি লোকসভা নির্বাচনে জিতবে, এটা বুঝতে পেরেই বিরোধীরা ইভিএম নিয়ে প্রশ্ন তুলতে শুরু করেছে।