স্বস্তি! টেলিকম সংস্থাগুলিকে স্পেকট্রামের বকেয়া অর্থ শোধের ক্ষেত্রে ছাড় দিল কেন্দ্র

বুধবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সভাপতিত্বে অর্থনৈতিক বিষয়ক ক্যাবিনেট কমিটির বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

Updated: Nov 21, 2019, 09:05 AM IST
স্বস্তি! টেলিকম সংস্থাগুলিকে স্পেকট্রামের বকেয়া অর্থ শোধের ক্ষেত্রে ছাড় দিল কেন্দ্র

নিজস্ব প্রতিবেদন: ভোডাফোন-আইডিয়া, ভারতী এয়ারটেলের মতো তীব্র আর্থিক সঙ্কটের মধ্যে দিয়ে চলা টেলিকম সংস্থাগুলি একটু হলেও স্বস্তি পেল। টেলিকম সংস্থাগুলিকে স্পেকট্রামের বকেয়া অর্থ পরিশোধের ক্ষেত্রে ছাড় দিল কেন্দ্র সরকার। ঋণশোধে ২ বছরের জন্য টেলিকম সংস্থাগুলিকে ছাড় দেওয়া হয়েছে।

 

তীব্র মাশুলের জেরে দেশের বেশিরভাগ টেলিকম সংস্থাগুলির বেহাল দশা সঙ্গে অনিশ্চিত ভবিষ্যত্! স্বল্পমেয়াদে স্বস্তি না মিললে দীর্ঘমেয়াদী ব্যবসা চালিয়ে যাওয়া সম্ভব নয়- তাই কেন্দ্রের বকেয়া মেটাতে কিছুটা বাড়তি সময় চেয়েছিল দেশের টেলিকম সংস্থাগুলি। সরকারি বকেয়া মেটাতে ২ বছরের জন্য স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত নিল কেন্দ্র। বুধবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সভাপতিত্বে অর্থনৈতিক বিষয়ক ক্যাবিনেট কমিটির বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সাংবাদিক বৈঠকে এই মোরাটোরিয়ামের কথা ঘোষণা করেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন।

আরও পড়ুন - দেশের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় বেসরকারিকরণ, BPCL, SCI, Concor বিক্রির সিদ্ধান্ত

নির্মলা সীতারমন জানান, "টেলিকম সংস্থাগুলির আবেদন এবং সচিব কমিটির সুপারিশের ভিত্তিতে তাঁরা স্পেকট্রামের বকেয়া মেটানো আপাতত ২ বছরের জন্য পিছিয়ে দিচ্ছেন। তবে সেই বকেয়া বাকি সময়ে কিস্তিতে মেটাতে হবে টেলিকম সংস্থাগুলিকে।" ফলে সঙ্কটের মধ্যে থাকা ভোডাফোন, এয়ারটেলের মতো টেলিকম সংস্থাগুলি একটু হলেও স্বস্তি পেল, তা বলাই যায়। বলা হয়েছে, ২০২০-২১ এবং ২০২১-২২ বর্ষের মূল্য দেরিতে শোধ করার পদক্ষেপে ভারতী এয়ারটেল ভোডাফোন-আইডিয়া এবং রিলায়েন্স জিও প্রায় দেড় লক্ষ কোটি টাকার বোঝা থেকে সাময়িক মুক্তি পাবে। কারণ এই সংস্থাগুলির কাছে কেন্দ্রের পাওনা এক লক্ষ সাতচল্লিশ হাজার কোটি টাকা।