ইঞ্জিনিয়ার থেকে রাজনীতিবিদ, কেমন ছিল মোদীভক্ত রিভাবা-র জার্নি?

রিভাবা বলেছিলেন যে প্রধানমন্ত্রী মোদীই তার রাজনীতিতে আসার অনুপ্রেরণা। একটি অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী মোদীর বক্তৃতা শুনে রাজনীতিতে প্রবেশের জন্য অনুপ্রাণিত হয়েছিলেন রিভাবা। রাজকোটে স্বামী জাদেজার রেস্তোরাঁও দেখাশোনা করেন রিভাবা। একদিকে মেয়েকে সামলে দলের সমাজসেবামূলক কর্মসূচিতেও যথাসময়ে পৌঁছেছেন তিনি।

Updated By: Nov 10, 2022, 03:12 PM IST
ইঞ্জিনিয়ার থেকে রাজনীতিবিদ, কেমন ছিল মোদীভক্ত রিভাবা-র জার্নি?

জি ২৪ ঘণ্টা ডিজিটাল ব্যুরো: গুজরাটের বিধানসভা নির্বাচনের জন্য বৃহস্পতিবার বিজেপি তাদের প্রথম প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করেছে। গুজরাট বিজেপির ইনচার্জ এবং কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ভূপেন্দ্র যাদব প্রার্থীতালিকা ঘোষণা করেছেন। ভারতীয় ক্রিকেট দলের তারকা অলরাউন্ডার রবীন্দ্র জাদেজার স্ত্রী রিভাবাকেও টিকিট দেওয়া হয়েছে। তিনি বিজেপির টিকিটে জামনগর (উত্তর) থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। বিশেষ বিষয় হল বিজেপি এই আসনে রিভাবার প্রতি আস্থা প্রকাশ করেছে। তাঁরা বর্তমান বিধায়ক ধর্মেন্দ্রসিংহ মেরুভা জাদেজা, যিনি হাকুভা জাদেজা নামেও পরিচিত তার টিকিট কেটে রিভাবাকে টিকিট দিয়েছে। ধর্মেন্দ্রসিংহ ২০১৭ সালের নির্বাচনে কংগ্রেস প্রার্থীকে ৪০ হাজারেরও বেশি ভোটে পরাজিত করেন। এবার ধর্মেন্দ্র সিংয়ের বদলে রিভাবার উপর আস্থা প্রকাশ করেছে বিজেপি। গুজরাটের বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী ভূপেন্দ্র প্যাটেল ঘাটলোদিয়া আসনে টিকিট পেয়েছেন।

প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বিজয় রূপানি এবং প্রবীণ নেতা ভূপেন্দ্রসিংহ চূড়াসামা বিধানসভা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। গুজরাট নির্বাচন ২০২২ এর ফলাফল হিমাচল প্রদেশ নির্বাচনের ফলাফলের সঙ্গে আট ডিসেম্বর ঘোষণা করা হবে।

রিভাবা জাদেজা, বিজেপির নতুন ট্রাম্প কার্ড

ক্রিকেটারের স্ত্রী মানেই একটি প্রচলিত ধারণা সবসময় আমাদের মনে আসে। কিন্তু রিভাবা জাদেজার লাইফস্টাইল ইঙ্গিত করে যে তিনি সেই বিভাগে পড়েন না। 'পদ্মাবত' ছবির বিরোধিতা করে রাস্তায় নেমেছিলেন তিনি। বিজেপির অনেকেই বলছেন, রাজপুত মহিলা রিভাবাও 'পদ্মাবতী'। ক্রিকেটারের স্ত্রীরাও নিজেদের কাজের জন্য পরিচিত এমন উদাহরণ ভারতীয় ক্রিকেটে কম নয়। শর্মিলা ঠাকুর, অনুষ্কা শর্মা, সাগরিকা গাটজে, হ্যাজেল কিচ, গীতা বসরা এরকম বহু উদাহরণ। রিভাবা তাদের থেকে একটু আলাদা।

রাজনীতিতে যোগ

রিভাবা নিজেকে একজন রাজপুত মহিলা হিসেবে পরিচয় দিতে পছন্দ করেন। তাঁর কাছে তার সম্প্রদায়ের জন্য একটি শক্তিশালী আবেগ আছে। সেই আবেগ থেকেই রাজনীতিতে রিভাবার প্রবেশ। ২০১৮ সালে, 'পদ্মাবত' সিনেমা নিয়ে দেশজুড়ে অস্থিরতা তৈরি হয়েছিল। এই সিনেমার তীব্র প্রতিবাদ শুরু করে কার্নি সেনা। তাদের সমর্থন করে আন্দোলনে যোগ দেন রিভাবাও। তার বক্তব্য ছিল রাজপুতদের কোনও অপমান সহ্য করা হবে না। রিভাবার বয়স তখন ২৮। সেই সময় ক্রিকেটার রবীন্দ্র জাদেজাকে বিয়ে করেন তিনি। এক বছরের মেয়েকে কোলে নিয়ে সক্রিয় রাজনীতিতে পথচলা শুরু করেন রিভাবা। যা তাকে আজ গুজরাট বিধানসভা নির্বাচনে আরও ভালো রাজনৈতিক ক্যারিয়ারের সামনে নিয়ে এসেছে।

ভারতীয় ক্রিকেটারের প্রথম বিধায়ক স্ত্রী

রিভাবা গুজরাট বিধানসভা নির্বাচনে জামনগর উত্তর আসন থেকে টিকিট পেয়েছেন। এখন, যদি তিনি নির্বাচনে জয়ী হন এবং একজন বিধায়ক হন, রবীন্দ্র জাদেজা সম্ভবত প্রথম ভারতীয় ক্রিকেটার হবেন যার স্ত্রী একজন বিধায়ক। কিন্তু এই ঘটনা এখনও সম্ভাবনার স্তরে রয়েছে।

আরও পড়ুন: মুলায়মের জায়গায় প্রার্থী পুত্রবধূ ডিম্পল! বিপক্ষে অপর্ণা যাদব?     

ইঞ্জিনিয়ার থেকে রাজনীতিবিদ

রিভাবা জানিয়েছেন তিনি রাজনীতিতে আসবেন তা কখনোই ভাবেননি। ইঞ্জিনিয়ারিং-এর ছাত্রী হওয়ায় তিনি একবার সরকারি চাকরি করার সিদ্ধান্ত নেন। সেই জন্য প্রস্তুতিও নিচ্ছিল। কিন্তু ২০১৬ সালে যখন তিনি জাদেজার সঙ্গে দেখা করেন, তখন সবকিছু বদলে যায়। রিভাবার বাবা একজন ব্যবসায়ী এবং তাঁর মা একজন সরকারি কর্মী। তিনি রেলওয়েতে চাকরি করেন। তিনি একমাত্র সন্তান। তবে রিভাবা পড়াশুনার পাশাপাশি তাঁর বাবার দুটি স্কুলের কাজকর্মও সামলাতেন।

কার্ণি সেনার সদস্য

কার্ণি সেনার বিক্ষোভে অংশ নেওয়ার পরই সক্রিয় রাজনীতিতে আগ্রহী হয়ে ওঠেন রিভাবা। কার্ণি সেনা তাকে গুজরাটের মহিলা শাখার প্রধান হিসেবে নিযুক্ত করে। ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে মূলধারার রাজনীতিতে রিভাবার প্রবেশ। লোকসভা নির্বাচনের প্রচারে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর গুজরাট সফরের ঠিক একদিন আগে তিনি বিজেপিতে যোগ দেন। কয়েকদিন পরে, স্বামী রবীন্দ্র জাদেজা রিভাবার সঙ্গে যান এবং প্রধানমন্ত্রী মোদীর সঙ্গে তাঁর দিল্লির বাসভবনে দেখা করেন।

প্রধানমন্ত্রী মোদী একজন অনুপ্রেরণা

রিভাবা বলেছিলেন যে প্রধানমন্ত্রী মোদীই তার রাজনীতিতে আসার অনুপ্রেরণা। একটি অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী মোদীর বক্তৃতা শুনে রাজনীতিতে প্রবেশের জন্য অনুপ্রাণিত হয়েছিলেন রিভাবা। সেই ভাষণে প্রধানমন্ত্রী মোদী বলেছিলেন, ‘রাজনীতিবিদদের সমালোচনা করার আগে, একজনকে রাজনীতিতে যোগ দেওয়া উচিত এবং সমাজ পরিবর্তনের চেষ্টা করা উচিত’। এটাই ছিল শুরু। গত তিন বছর ধরে রাজনীতিতে কাজ করছেন রিভাবা। তিনি বিজেপি নেতা হিসেবেও জনপ্রিয়।

রাজকোটে স্বামী জাদেজার রেস্তোরাঁও দেখাশোনা করেন রিভাবা। একদিকে মেয়েকে সামলে দলের সমাজসেবামূলক কর্মসূচিতেও যথাসময়ে পৌঁছেছেন তিনি। সরকারি প্রকল্পের সুবিধা সম্পর্কে গ্রামবাসীদের বোঝান। সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেয়। কপালে সিঁদুর, টিপ, মাথায় ওড়না পরা রিভাবা সেই সময় ক্রিকেটার জাদেজার স্ত্রী নন। এমনকি রেস্তোরাঁর মালিকও নন। তিনি তখন রাজপুত মহিলা। যিনি তার সম্প্রদায়ের উন্নতির জন্য ‘পদ্মাবতী’র মতো আগুনে ঝাঁপ দিতে প্রস্তুত।

(Zee 24 Ghanta App দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App)