এত দিন হাত পা বাঁধা ছিল কৃষকদের, মুক্ত করল মোদী সরকার!

এ দিন প্রধানমন্ত্রী জানান, এই সব বিল চাষিদের কষ্টার্জিত ফসল নিজেরা ইচ্ছা মতো যে কোনও জায়গায় বিক্রি করতে পারবেন। কিষান মান্ডিতে শস্যপণ্যের না দাম পেলে যে কোনও বিক্রি করার স্বাধীনতা চাষিদের দেওয়া হয়েছে

Updated By: Sep 21, 2020, 03:28 PM IST
এত দিন হাত পা বাঁধা ছিল কৃষকদের, মুক্ত করল মোদী সরকার!
ছবি- এএনআই

নিজস্ব প্রতিবেদন: লক্ষ্য বিহার। তবে, দেশের সব চাষির উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী জানালেন, এত দিন হাত-পা বাঁধা ছিল চাষিদের। সেই বন্ধন মুক্ত করে দিতেই কৃষি সংস্কারের পথে হেঁটেছে সরকার। এভাবেই সোমবার এক ঢিলে দুই পাখি মারলেন প্রধানমন্ত্রী।

এ দিন ভিডিয়ো কনফারেন্সে বিহারের ৯ লেনের হাইওয়ের শিলান্য়াস করেন নরেন্দ্র মোদী। উপস্থিত ছিলেন বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার। মোদীর সুরেই নীতীশও বলেন, সংসদে কৃষি বিল পাশ হওয়ায় উপকৃত হবেন কৃষকরাই। বিহারে বিধানসভা নির্বাচনে 'মোদীর কৃষি সংস্কারকে' হাতিয়ার করেই ময়দানে নামছেন, নীতীশের কথাতে স্পষ্ট। রাজ্যসভায় বিরোধীদের বিক্ষোভ প্রদর্শনের সমালোচনাও করেন তিনি।

এ দিন প্রধানমন্ত্রী জানান, এই সব বিল চাষিদের কষ্টার্জিত ফসল নিজেরা ইচ্ছা মতো যে কোনও জায়গায় বিক্রি করতে পারবেন। কিষান মান্ডিতে শস্যপণ্যের না দাম পেলে যে কোনও বিক্রি করার স্বাধীনতা চাষিদের দেওয়া হয়েছে। তার সঙ্গে নরেন্দ্র মোদীর ফের আশ্বাস, ন্যূনতম সহায়ক মূল আগে যেমন ছিল, এখনও তেমনই থাকবে। দেশের কৃষি ব্যবস্থার পরিপন্থী নয় এই সব বিল। 

আরও পড়ুন- তাবলিঘি জামাতের জন্যই দিল্লিতে করোনা পরিস্থিতি উদ্বেগজনক, দাবি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের

কৃষকদের ন্যূনতম সহায়ক মূল্য দিতে সরকার যে বদ্ধপরিকর, প্রধানমন্ত্রী উদাহরণ দিয়ে বলেন, করোনা আবহে কৃষকদের থেকে সবচেয়ে গম ক্রয় করা হয়েছে। প্রায় এক লক্ষ ১৩ হাজার ন্যূনতম সহায়ক মূল্য কৃষকদের দেওয়া হয়েছে। যা গত বছরের তুলনায় ৩০ শতাংশ বেশি।