'আমি ছিলাম-ই না!', অঙ্কিত শর্মা খুনে FIR দায়ের হতেই বেপাত্তা 'নির্দোষ' তাহির

"আমি সেখানে উপস্থিত ছিলাম না। আমি নিজেই আমার পরিবার ও বাচ্চাদর বাঁচাতে ব্যস্ত ছিলাম..."

Edited By: সুদেষ্ণা পাল | Updated By: Feb 28, 2020, 01:03 PM IST
'আমি ছিলাম-ই না!', অঙ্কিত শর্মা খুনে FIR দায়ের হতেই বেপাত্তা 'নির্দোষ' তাহির

নিজস্ব প্রতিবেদন : আইবি অফিসার অঙ্কিত শর্মাকে (Ankit Sharma) খুনে জড়িত থাকার অভিযোগ উঠেছে বহিষ্কৃত আপ কাউন্সিলর (AAP) তাহির হুসেনের (Tahir Hussain) বিরুদ্ধে। বৃহস্পতিবার তাঁর বিরুদ্ধে দায়ের হয়েছে FIR। দিল্লির দয়ালপুর থানায় তাহির হুসেন বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩০২ ধারায় খুনের অভিযোগ করা হয়েছে। এদিকে FIR-র দায়েরের পর থেকেই বেপাত্তা তাহির হুসেন। বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৪টডে নাগাদ কাজ থেকে বাড়িতে ফেরেন তাহির হুসেন। তারপর রাত থেকেই তাঁর আর কোনও খোঁজ নেই। বহিষ্কৃত আপ কাউন্সিলরকে এখন হন্যে হয়ে খুঁজছে পুলিস। তাহির হুসেনের খোঁজে ইতিমধ্যেই তাঁর বাড়িতে গিয়ে পৌঁছেছে দিল্লি পুলিসের একটি দল। বাড়িতে তল্লাশি চালাচ্ছে তারা। অন্যদিকে, ইতিমধ্যেই সিল করে দেওয়া হয়েছে তাহির হুসেনের কারখানা।

চাঁদবাগের নালায় উদ্ধার হয় আইবি অফিসার অঙ্কিত শর্মার দেহ। অভিযোগ, বাড়ি ফেরার সময় অঙ্কিতের উপরে হামলা চালায় দুষ্কৃতীরা। ময়নাতদন্তে তাঁর শরীরে একাধিক জায়গায় ছুরি দিয়ে আঘাতের চিহ্ন মিলেছে। অঙ্কিতের বাবা রবীন্দ্র শর্মা অভিযোগ করেন, তাহির হুসেনের সমর্থকরাই তাঁর ছেলেকে খুন করেছে। মারধরের পর গুলি করা হয়েছে অঙ্কিতকে। সংবাদসংস্থা এএনআই-কে রবীন্দ্র শর্মা বলেন,'' প্রায় ১৫-২০ জন তাহির হুসেনের বাড়ি থেকে বেরিয়ে  অঙ্কিতকে টানতে টানতে নিয়ে যায়। তাহির সমাজ-বিরোধী। ওর বাড়ি থেকে পাথর, বোমা ছুড়ছিল দুষ্কৃতীরা।''

যদিও তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ সর্বৈব মিথ্যা বলে দাবি করেছেন অভিযুক্ত তাহির হুসেন। বহিষ্কৃত আপ কাউন্সিলর পাল্টা দাবি করেছেন, "আমি সেখানে উপস্থিত ছিলাম না। আমি নিজেই আমার পরিবার ও বাচ্চাদর বাঁচাতে ব্যস্ত ছিলাম। এটা খুব-ই দুঃখজনক যে অঙ্কিতের বাবা, মা তাঁদের ছেলেকে হারিয়েছেন। তাঁরা যা ইচ্ছে, তা-ই বলতে পারেন। আমার তাতে কিছু করার নেই। তবে অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা ও আমাকে এই ঘটনার সঙ্গে ভুলভাবে জড়ানো হচ্ছে।" আরও বলেন,"আমার বাড়িতে হামলা চালানো হয়েছিল। ছাদে উঠে পুলিসের সহযোগিতা চেয়েছিলাম। কিন্তু অনেক পরে পুলিস এসেছে। ওদের অনুরোধ করেছিলাম, আমায় নিরাপত্তা দিন। পরে বাহিনী সরে যায়। কারণটা জানি না।"

আরও পড়ুন, দিল্লি ‘শান্ত’ হতেই বদলে গেল পুলিস কমিশনার, অমূল্যের জায়গায় এলেন শ্রীবাস্তব

আরও পড়ুন, বিচারপতি বদলি হতেই BJP নেতাদের বিরুদ্ধে রায় বদলে গেল দিল্লি হাইকোর্টে

কিন্তু, সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিয়োয় দেখা যাচ্ছে, লাঠি হাতে বাড়ির ছাদে ঘুরছেন তাহির হুসেন। পাশাপাশি, তাহির হুসেনের বাড়ির ছাদ থেকে উধ্ধার হয় পেট্রোল বোমা ও পাথর। ছাদের নীচের তলাতে উদ্ধার হয় অ্যাসিডও। ঘটনার দিন তাহিরের বাড়ির ছাদ থেকেই দুষ্কৃতীরা পেট্রোল বোমা ও পাথর ছোড়ে বলে অভিযোগ করেছেন অঙ্কিত শর্মা প্রতিবেশীরা। একইসঙ্গে অফিসার অঙ্কিত শর্মা ও  এসএসবি-র জওয়ানদের উপর অ্যাসিড ঢালারও অভিযোগ উঠেছে। আইবি অফিসার খুনে আপ কাউন্সিলরের নাম জড়াতেই তাঁকে দল থেকে বহিষ্কার করেছেন সুপ্রিমো অরবিন্দ কেজরিওয়াল। পাশাপাশি, সদ্য নির্বাচিত দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন,''যিনি-ই হিংসার ঘটনায় জড়িত থাকুন না কেন, তাঁকে রেয়াত করা চলবে না। আমার মন্ত্রিসভার সদস্য হলেও শাস্তি পেতে হবে। আপের কেউ জড়িত থাকলে আমি মনে করি দ্বিগুণ শাস্তি হওয়া উচিত।''