রাম মন্দির স্থাপনের ফলে অযোধ্যার অর্থনীতির ভোল পাল্টে যাবে: মোদী

এদিন রামমন্দিরের ভূমিপুজোর শেষে ভাষণের সময়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, "এই মন্দির আধুনিক ভারতের প্রতীক হবে। এই মন্দির কোটি কোটি ভারতীয়র অনুপ্রেরণা, সঙ্কল্প ও ইচ্ছাশক্তির প্রতীক হয়ে উঠবে।"

Updated By: Aug 5, 2020, 02:39 PM IST
রাম মন্দির স্থাপনের ফলে অযোধ্যার অর্থনীতির ভোল পাল্টে যাবে: মোদী
ভিডিয়োর স্ক্রিনগ্র্যাব

নিজস্ব প্রতিবেদন : অযোধ্যা রাম মন্দিরের প্রতিষ্ঠার পর এর অর্থনৈতিক দিকটিও তুলে ধরলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। দেশে এক ঐক্য ও সংস্কৃতির ভাবনার পাশাপাশি অযোধ্যার উন্নয়ন সাধনেও রামমন্দিরের গুরুত্ব ব্যাখ্যা করলেন প্রধানমন্ত্রী।

এদিন রামমন্দিরের ভূমিপুজোর শেষে ভাষণের সময়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, "এই মন্দির আধুনিক ভারতের প্রতীক হবে। এই মন্দির কোটি কোটি ভারতীয়র অনুপ্রেরণা, সঙ্কল্প ও ইচ্ছাশক্তির প্রতীক হয়ে উঠবে।"

এরপরেই রামমন্দিরের অর্থনৈতিক গুরুত্বের দিকটি তিনি তুলে ধরেন। তিনি বলেন, "এই মন্দির তৈরি হলে অযোধ্যার ছবিটাই বদলে যাবে। ভোল পাল্টে যাবে এই এলাকার অর্থনীতির। রামমন্দির দর্শনে পুরো বিশ্বের মানুষ আসবেন। আর তার ফলে চেহারাই পাল্টে যাবে এখানকার। পুরো ভারতকে এক সূত্রে বাঁধবে এই মন্দির।"

করোনা পরিস্থিতির জন্য ভূমিপুজোর অনুষ্ঠান অনেক ছোট করে হচ্ছে। আমন্ত্রিতদের তালিকাতেও বড় কাটছাঁট করা হয়েছে। এ প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, "শ্রীরামের জীবনে যেমন সাদামাঠা আয়োজনের উদাহরণ থাকত, ঠিক সেরকমই করা হয়েছে।" 

তিনি বলেন, এই অনাড়ম্বরতা আসলে ভারতের প্রতীক। এ প্রসঙ্গে করোনার আগের সময়েরও উদাহরণ দেন তিনি। মোদী বলেন, "যখন আদালত রায় দিয়েছিলেন, তখনও কিন্তু এরকমই সাধারণ ব্যবহার করা হয়েছিল। সবার ভাবনা, বিশ্বাসের খেয়াল রেখেই রাম মন্দির স্থাপনের আনন্দে মেতেছিলেন দেশবাসী।"
আরও পড়ুন : "রামের অস্তিত্ব মেটানোর বহু চেষ্টা হয়েছে, কিন্তু তিনি আমাদের হৃদয়ে আছেন"