শিলিগুড়িতে আই লিগে ইস্টবেঙ্গল বনাম মোহনবাগান ম্যাচ গোলশূন্য

পাহাড়ের ডার্বি শেষ অমিমাংসিতভাবে। শিলিগুড়িতে আই লিগে ইস্টবেঙ্গল বনাম মোহনবাগান শেষ গোলশূন্য। নব্বই মিনিট শেষে যুযুধান দুপক্ষের মধ্যে কোনও পার্থক্যই হল না। ম্যাচের প্রথমার্ধ মোহনবাগানের হলে দ্বিতীয়ার্ধটা ইস্টবেঙ্গলের। তবে দুটো দলের জমাট রক্ষণের ফলে গোলের মুখ খুলতে পারেননি স্ট্রাইকাররা। জ্বলে উঠতে পারেননি সোনি,প্লাজারা। এই ড়্রয়ের ফলে আট ম্যাচে কুড়ি পয়েন্টে পৌছল ইস্টবেঙ্গল। এক ম্যাচ কম খেলে সতেরো পয়েন্টে দাঁড়িয়ে মোহনবাগান। শিলিগুড়িতে অমীমাংসিত ডার্বি। হতাশ স্টেডিয়ামে উপস্থিত দর্শকরা। তবে ম্যাচ থেকে এক পয়েন্ট পেয়ে খুশি দুই প্রধানের দুই কোচ। অবশ্য  ড্র ম্যাচে চাপের তত্ত্বও উঠে এল। ইস্টবেঙ্গল কোচ মরগ্যানের দাবি ডার্বির চাপে গোল করার জন্য কোনও দলের ফুটবলাররাই বাড়তি সাহস দেখাতে পারেননি। সঞ্জয় সেন অবশ্য প্রতিপক্ষকে কটাক্ষ করতে ছাড়েননি। গোটা ম্যাচে তাঁরা ইস্টবেঙ্গলকে চাপে রেখেছিলেন বলে দাবি সঞ্জয়ের।

Updated By: Feb 12, 2017, 11:04 PM IST
শিলিগুড়িতে আই লিগে ইস্টবেঙ্গল বনাম মোহনবাগান ম্যাচ গোলশূন্য

ওয়েব ডেস্ক: পাহাড়ের ডার্বি শেষ অমিমাংসিতভাবে। শিলিগুড়িতে আই লিগে ইস্টবেঙ্গল বনাম মোহনবাগান শেষ গোলশূন্য। নব্বই মিনিট শেষে যুযুধান দুপক্ষের মধ্যে কোনও পার্থক্যই হল না। ম্যাচের প্রথমার্ধ মোহনবাগানের হলে দ্বিতীয়ার্ধটা ইস্টবেঙ্গলের। তবে দুটো দলের জমাট রক্ষণের ফলে গোলের মুখ খুলতে পারেননি স্ট্রাইকাররা। জ্বলে উঠতে পারেননি সোনি,প্লাজারা। এই ড়্রয়ের ফলে আট ম্যাচে কুড়ি পয়েন্টে পৌছল ইস্টবেঙ্গল। এক ম্যাচ কম খেলে সতেরো পয়েন্টে দাঁড়িয়ে মোহনবাগান। শিলিগুড়িতে অমীমাংসিত ডার্বি। হতাশ স্টেডিয়ামে উপস্থিত দর্শকরা। তবে ম্যাচ থেকে এক পয়েন্ট পেয়ে খুশি দুই প্রধানের দুই কোচ। অবশ্য  ড্র ম্যাচে চাপের তত্ত্বও উঠে এল। ইস্টবেঙ্গল কোচ মরগ্যানের দাবি ডার্বির চাপে গোল করার জন্য কোনও দলের ফুটবলাররাই বাড়তি সাহস দেখাতে পারেননি। সঞ্জয় সেন অবশ্য প্রতিপক্ষকে কটাক্ষ করতে ছাড়েননি। গোটা ম্যাচে তাঁরা ইস্টবেঙ্গলকে চাপে রেখেছিলেন বলে দাবি সঞ্জয়ের।

আরও পড়ুন হায়দরাবাদ টেস্টে ভারতকে জিততে সোমবার চাই ৭ উইকেট

শক্তিশালী মোহনবাগানের বিরুদ্ধে এক পয়েন্ট পাওয়াকে লাকি পয়েন্ট হিসাবে দেখতে নারাজ মরগ্যান। অন্যদিকে সঞ্জয় সেনের দাবি মরগ্যানের ইংলিশ স্টাইল ফুটবলের জন্য তাঁরা প্রস্তুত ছিলেন।মাঠের ডার্বির মতই মাঠের বাইরে দুই প্রধানের কোচের লড়াইও অমীমাংসিতই রইল।

আরও পড়ুন  পাকিস্তানকে হারিয়ে দৃষ্টিহীনদের টি২০ বিশ্বকাপ জিতল ভারত