ফিরতি ডার্বিতেও মোহনবাগানকে মাত দিয়ে ২-০ গোলে জয় ইস্টবেঙ্গলের

ফিরতি ডার্বিতে জয় পেল ইস্টবেঙ্গল। 

Updated By: Jan 28, 2019, 12:08 AM IST
ফিরতি ডার্বিতেও মোহনবাগানকে মাত দিয়ে ২-০ গোলে জয় ইস্টবেঙ্গলের

নিজস্ব প্রতিবেদন: মরসুমের শেষ ডার্বির রংও লালহলুদ। ফিরতি ডার্বিতে মোহনবাগানকে ২-০ গোলে হারিয়ে লিগ জমিয়ে দিল ইস্টবেঙ্গল। ম্যাচে ইস্টবেঙ্গলের হয়ে গোল করেন কোলাডো এবং জবি জাস্টিন। ১৩ ম্যাচে ইস্টবেঙ্গলের পয়েন্ট পঁচিশ। ডার্বি জিতে চেন্নাইয়ের উপর চাপ বাড়ালো ইস্টবেঙ্গল। 

চলতি মরসুমে ডার্বি জয়ের একশো শতাংশ রেকর্ড ধরে রাখল ইস্টবেঙ্গল। ফিরতি ডার্বিতে মোহনবাগানকে ২-০ গোলে হারিয়ে দিল লালহলুদ। এদিন শুরু থেকেই আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে ম্যাচ জমে ওঠে। যখন মনে হচ্ছিল গোলশূন্যভাবে প্রথমার্ধ শেষ হতে চলেছে তখনই গোল। ম্যাচের ৩৫ মিনিটে কোলাডোর গোলে এগিয়ে যায় ইস্টবেঙ্গল।জবি জাস্টিনের নিখুঁত পাস থেকে গোল করে যান এই স্প্যানিশ তারকা। দ্বিতীয়ার্ধে সমতা ফেরাতে মরিয়া হয়ে ঝাঁপায় মোহনবাগান। ইস্টবেঙ্গল গোলে একের পর এক আক্রমণ শানাতে থাকেন সোনিরা। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে ৫২ মিনিটে কর্ণার থেকে গোল করেন ডিকা। কিন্তু অফসাইডের জন্য বাতিল হয়ে যায় গোল। 

 

 

 ২০০৪ সালের পর ডার্বির দুটি লেগই জিতল ইস্টবেঙ্গল। মরসুমের শেষ ডার্বি জিতে লিগ জমিয়ে দিল লালহলুদ। ১৩ ম্যাচে ২৫ পয়েন্ট আলেসান্দ্রো ব্রিগেডের। আই লিগের প্রথম ডার্বিতে মোহনবাগানের কোচ ছিলেন শঙ্করলাল চক্রবর্তী। এবার কোচ খালিদ জামিল। কিন্তু কোচ বদল করেও ভাগ্য ফেরাতে পারল না সবুজ মেরুন। বলে রাখি, ইস্টবেঙ্গলের কোচ হিসেবেও কখন ডার্বিতে জয়ের মুখ দেখেননি খালিদ। শিবির বদলেও খালিদের শনির দশা কাটল না।