কলকাতার হঠাত্ ক্যাপ্টেন বদলের অন্য 'গল্প' আছে, শোনালেন ঠোঁটকাটা গম্ভীর

কেকেআরের সর্বকালের অন্যতম সফল অধিনায়ক গৌতম গম্ভীরের আরেক পরিচয়, তিনি ঠোঁটকাটা। তাঁর মুখে কিছুই আটকায় না। 

Edited By: সুমন মজুমদার | Updated By: Oct 17, 2020, 04:17 PM IST
কলকাতার হঠাত্ ক্যাপ্টেন বদলের অন্য 'গল্প' আছে, শোনালেন ঠোঁটকাটা গম্ভীর

নিজস্ব প্রতিবেদন- আট ম্যাচ খেলে রান ১১২। গড় ১৪। সর্বোচ্চ রান ৫৮। দুবাইয়ের আইপিএলে কেকেআর-এর ব্যাটসম্যান হিসেবে দীনেশ কার্তিকের অবদান এটুকুই। ফলে স্বাভাবিকভাবেই এবারের আইপিএলে তাঁর পারফরম্যান্স নিয়ে প্রশ্ন ওঠারই কথা। মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে কঠিন ম্যাচের আগে কার্তিক আচমকাই তাই ক্যাপ্টেন্সি থেকে সরে দাঁড়ালেন। তাঁর বক্তব্য, ক্যাপ্টেন্সি থেকে সরে গিয়ে এবার তিনি ব্যাটিংয়ে ফোকাস করতে চান। অর্থাৎ ব্যাট হাতে তিনি কলকাতাকে রানে ভরিয়ে দিতে চাইছেন। কেকেআরের নতুন ক্যাপ্টেন ইয়ন মরগ্যান মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে ম্যাচে টস করতে এসেই কার্তিকের স্বার্থত্যাগের কথা বললেন। কিন্তু আদতে কি ব্যাপারটা এত সহজ! নাকি কেকেআরের অধিনায়ক বদলের পেছনে রয়েছে অন্য কোনও গল্প!

কেকেআরের সর্বকালের অন্যতম সফল অধিনায়ক গৌতম গম্ভীরের আরেক পরিচয়, তিনি ঠোঁটকাটা। তাঁর মুখে কিছুই আটকায় না। সাদাকে সাদা এবং কালোকে কালো তিনি মুখের উপরই বলতে পারেন। আর এই জন্য তাঁর বেশ নাম ও বদনাম, দুই-ই রয়েছে। ক্যাপ্টেন বদলের দিনে কেকেআরকে দুরমুশ করল মুম্বই। আর তারপরই কেকেআরের ক্যাপ্টেন বদলের এপিসোড নিয়ে প্রশ্ন উঠল। গম্ভীর এই প্রসঙ্গে বরাবরের মতো ঠোঁটকাটা ভঙ্গিতেই ছিলেন। তাঁর বক্তব্য, ''এটা ক্রিকেট। সম্পর্ক বজায় রাখার কোনো মঞ্চ নয়। এখানে পারফরম্যান্স আর সততাই শেষ কথা। আমার মনে হয় না মরগ্যান টুর্নামেন্টের মাঝখানে দায়িত্ব নিয়ে বিরাট কিছু করতে পারবে! টুর্নামেন্টের শুরু থেকে ওকে দায়িত্ব দেওয়া হলে আলাদা ব্যাপার ছিল। তবে এভাবে মাঝপথে দায়িত্ব নিয়ে মরগ্যান কেন কেউই দলের হাল ফিরিয়ে দিতে পারবে না। আর ক্যাপ্টেন ও কোচের মধ্যে ভাল সম্পর্ক থাকলে দেখতে ভাল লাগে। কিন্তু সেটা আবার অন্য কোনো স্বার্থে ব্যবহৃত হলেই মুশকিল।''

আরও পড়ুন-  সাড়ে ১৫ কোটির প্যাট কামিন্স যেন পাড়ার বোলার! ক্যাপ্টেন বদলের দিনে কলকাতার ভরাডুবি

হঠাৎ করে দীনেশ কার্তিকের অধিনায়কত্ব ছাড়ার ব্যাপারে গম্ভীর উষ্মা প্রকাশ করেছেন। তিনি বলেছেন, ''অবশ্যই আমি অবাক। দলে একজন বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক রয়েছে। তাহলে তাকে তো শুরু থেকেই টিম ম্যানেজমেন্ট ক্যাপ্টেন্সি দিয়ে দিতে পারত। তাহলে আর প্রথম থেকে দীনেশ কার্তিককে এত চাপের মধ্যে থেকে খেলতে হত না। খোলা মনে খেলতে পারলে ওর ব্যাট থেকে আরো কিছু রান আসত। টুর্নামেন্টের শুরু থেকেই মরগ্যানকে ক্যাপ্টেন হিসেবে ভাবা উচিত ছিল। টিম ম্যানেজমেন্ট অকারণে কার্তিককে চাপের মধ্যে ফেলল। কেউ একজন ক্যাপ্টেন্সি ছেড়ে ব্যাটিংয়ে মন দিতে চাইলে সেটা শুনতে খুবই ভাল লাগে। কিন্তু আসলে ব্যাপারটা অন্য। আদতে টিম ম্যানেজমেন্ট কার্তিকের উপর খুশি ছিল না। তাই চাপে পড়েই কার্তিককে এমন সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছে। আমার অন্তত তাই মনে হয়।''