অশ্বিন-জাদেজার ব্যাটিংয়েই উঠে দাঁড়ালো ভারত

ইংল্যান্ডের প্রথম ইনিংসের ব্যাটিং ব্যর্থতা কাজে লাগাতে পারল না, ভারতীয় শিবির। প্রথম দিনের ৮ উইকেটে ২৬৮ রান নিয়ে খেলতে নেমে, আজ ইংল্যান্ডের প্রথম ইনিংস শেষ হয়ে যায় ২৮৩ রানেই। মহম্মদ শামি ভারতীয়দের মধ্যে সবথেকে বেশি তিনটি উইকেট নেন। জবাবে ব্যাট করতে নেমে দ্বিতীয় দিনের শেষে ভারতের প্রথম ইনিংসের রান ৬ উইকেটের বিনিময়ে ২৭১! পিছিয়ে এখনও ১২ রানে। হাতে রয়েছে চার উইকেট।

Updated By: Nov 27, 2016, 05:06 PM IST
অশ্বিন-জাদেজার ব্যাটিংয়েই উঠে দাঁড়ালো ভারত

ওয়েব ডেস্ক: ইংল্যান্ডের প্রথম ইনিংসের ব্যাটিং ব্যর্থতা কাজে লাগাতে পারল না, ভারতীয় শিবির। প্রথম দিনের ৮ উইকেটে ২৬৮ রান নিয়ে খেলতে নেমে, আজ ইংল্যান্ডের প্রথম ইনিংস শেষ হয়ে যায় ২৮৩ রানেই। মহম্মদ শামি ভারতীয়দের মধ্যে সবথেকে বেশি তিনটি উইকেট নেন। জবাবে ব্যাট করতে নেমে দ্বিতীয় দিনের শেষে ভারতের প্রথম ইনিংসের রান ৬ উইকেটের বিনিময়ে ২৭১! পিছিয়ে এখনও ১২ রানে। হাতে রয়েছে চার উইকেট।

আরও পড়ুন দক্ষিণ আফ্রিকার প্রাক্তন অধিনায়ক হয়ে গেলেন অস্ট্রেলিয়ার নাগরিক!

এদিন ভারতের হয়ে ওপেন করতে নেমেছিলেন মুরলী বিজয় এবং পার্থিব প্যাটেল। মুরলী বিজয় মাত্র ১২ রান করেই আউট হয়ে যান। যদিও আট বছর পর টেস্ট খেলতে নেমে পার্থিব ৪২ রান করে যান। চেতেশ্বর পূজারা আউট হন ৫১ রান করে। অধিনায়ক বিরাট কোহলির অবদান ৬২ রান। আউটও হলেন কিনা স্টোকসের বলেই। যাঁর সঙ্গে প্রথম ইনিংসে আউটের পর তর্কাতর্কিও হয়েছিল বিরাটের। অবশ্য আউট হওয়ার আগে পর্যন্ত স্টোকসের বলে বেশ কিছু রানও করেছেন বিরাট। বলাইবাহুল্য, সেগুলো ছিল প্রহার। অজিঙ্কা রাহানে এরপর নেমে ০ রান করেন। গোটা সিরিজেই তিনি ব্যর্থ। অভিষেক টেস্ট খেলতে নেমে করুন নায়ার রান আউট হয়ে যান মাত্র ৪ রান করে। এরপর ভারতীয় ইনিংসের হাল ধরেন অশ্বিন এবং জাদেজা। অশ্বিন তো রীতিমতো ভালো ব্যাটিং করে চলেছেন গোটা সিরিজেই। এদিনও তার অন্যথা হল না। হাফ সেঞ্চুরি করে গেলেন সাবলীলভাবে। লাগাতার তিন টেস্টেই কোনও না কোনও ইনিংসে হাফ সেঞ্চুরি পেলেন অশ্বিন। সঙ্গে যোগ্য সঙ্গত দিলেন জাদেজাও। দিনের শেষে অশ্বিন অপরাজিত রয়েছেন ৫৭ রানে এবং জাদেজা অপরাজিত রয়েছেন ৩১ রান করে। তৃতীয় দিনের প্রথম সেশনটা খুব গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠতে চলেছে ভারতের জন্য। লিড যতটা সম্ভব বাড়িয়ে নেওয়া যায়। মোহালির পিচে সেটাই যথেষ্ঠ হতে চলেছে ভারতের জন্য।

আরও পড়ুন  বিশ্বের সেরা ১০ হ্যান্ডসাম